kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মানিকগঞ্জে কাসেমের লাশ দাফনে আপত্তি

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



মীর কাসেম আলীর লাশ হরিরামপুরের চালা গ্রামে দাফনের ব্যাপারে আপত্তি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। সেখানে নিজের কেনা জমিতে মসজিদের পাশে কাসেম আলীকে দাফন করা হতে পারে বলে গতকাল সন্ধ্যায় পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

এ সিদ্ধান্ত আঁচ করতে পেরে দুই দিন আগে থেকেই প্রতিবাদ সভা ও মিছিল করছেন মুক্তিযোদ্ধাসহ হরিরামপুরের বাসিন্দারা।

হরিরামপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবুল বাশার সবুজ বলেন, ‘মীর কাসেম আলীর দাফন হরিরামপুরে হোক এটা আমরা চাই না। যার ফলে আমরা অবস্থান নিয়ে প্রতিবাদ করেছি। ’

হরিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান আবদুর রব বলেন, ‘এই কুলাঙ্গারের লাশ এখানে দাফন হওয়াটা আমাদের জন্য অপমানজনক। তাই রাত জেগে পাহারা দিচ্ছি। ’

হরিরামপুর উপজেলার সুতালরি ইউনিয়নের মুন্সিডাঙ্গি গ্রামে মীর কাসেম আলীর বাবা তৈয়ব আলীর বাড়ি ছিল, তা পদ্মা নদীতে বিলীন হয়েছে। কাসেম আলী চট্টগ্রামেই বড় হয়েছেন, তাঁর মানিকগঞ্জে যাতায়াত ছিল না। ২০০১ সালে হরিরামপুর উপজেলার চালা ইউনিয়নে তিনি প্রায় ৫০ শতাংশ জমি কেনেন ও নির্মাণ করেন একটি মসজিদ। এরপর ২০০৭ সালে মানিকগঞ্জ-৩ (হরিরামপুর-সিংগাইর) আসনে জোটের প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করলেও পরে মনোনয়ন পাননি। চালা গ্রামে নিজের কেনা জমিতেই কাসেম আলীর দাফন হবে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।


মন্তব্য