kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ওয়ারীতে বিস্ফোরণ মারা গেলেন দগ্ধ দাদিও

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



রাজধানীর ওয়ারীতে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণযন্ত্র (এসি) বিস্ফোরণের ঘটনার ছয় দিন পরে দগ্ধ পারুল আক্তারও (৬০) মারা গেছেন। গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

এর আগে গত শনিবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে টিপু সুলতান রোডের বাসার এসি বিস্ফোরিত হয়ে পারুল ও তাঁর নাতি ফাহিম শিকদার (১২) দগ্ধ হয়। ওই দিনই বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফাহিম শিকদার মারা যায়। ফাহিম ধানমণ্ডির অক্সফোর্ড স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শংকর পাল জানান, পারুল আক্তার ও ফাহিম গত ২৭ আগস্ট দগ্ধ হয়ে বার্ন ইউনিটে চিকিৎসা নিতে আসে। পারুল আক্তারের শরীরের ৩৭ শতাংশ এবং ফাহিমের ৯৫ শতাংশ পুড়ে যায়। ঘটনার দিন রাত সাড়ে ৯টার দিকে ফাহিম মারা যায়। আর পারুল আক্তার চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ (শুক্রবার) সকাল ১০টার দিকে মারা গেছেন।


মন্তব্য