kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


নির্যাতনের ভয় দেখিয়ে আসামির স্ত্রীকে ধর্ষণ!

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে একটি ডাকাতি মামলায় রিমান্ডে থাকা স্বামীকে নির্যাতনের ভয় দেখিয়ে তার দুই স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে এক পুলিশ কর্মকর্তা ও দুই সোর্সের বিরুদ্ধে। ওই আসামির আইনজীবী জানিয়েছেন, দুই নারী বিষয়টি তাঁকে জানিয়েছেন

এবং মামলা করতে বললেও পুলিশের ভয়ে মামলা করতে সাহস পাচ্ছেন না।

অভিযুক্তরা হলেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই আতাউর রহমান ও তাঁর দুই সোর্স নজরুল ইসলাম ও শুভ। এসআই আতাউর অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তবে ডাকাতি মামলা হওয়ায় বিষয়টি সাজানো হতে পারে বলে মনে করছেন পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

ওই আসামির বাবা ও দুই স্ত্রী জানান, রিমান্ডে নেওয়ার পর রাতেই সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পাশে এসআই আতাউর রহমানের সোর্স নজরুল ইসলাম ও শুভ তাঁদের ফোন করে বলে, আসামিকে রিমান্ডে মারধর করা হবে না। এ জন্য ‘স্যারের’ সঙ্গে দেখা করে ২৫ হাজার টাকা দিতে হবে। রাত সাড়ে ১০টায় দুই নারী থানার অদূরে গেলে নজরুলের ফ্ল্যাটে নিয়ে যাওয়া হয়। দেনদরবারের একপর্যায়ে ছয় হাজার টাকাও দেন দুই স্ত্রী। কিন্তু বাকি টাকা দিতে ব্যর্থ হলে ভয় দেখিয়ে দুই সোর্স দুই নারীকে ধর্ষণ করে। রাত সাড়ে ১২টার দিকে এসআই আতাউর ওই বাসায় গিয়ে এক নারীকে ধর্ষণ করে।

অভিযোগ প্রসঙ্গে এসআই আতাউর রহমান বলেন, ‘ঘটনাটি মিথ্যা। আমার সঙ্গে কারো কোনো কথা কিংবা লেনদেনের আলাপ হয়নি। তবে নজরুল ও শুভ  আমিসহ আরো পুলিশের পক্ষে সোর্স হিসেবে কাজ করে। ’


মন্তব্য