kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


হাসপাতাল কর্মীর কঙ্কাল ব্যবসা!

সিলেট অফিস   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজের হিস্টোলজি বিভাগের দুই কর্মচারী কঙ্কাল ব্যবসার সঙ্গে জড়িত বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বুধবার রাতে হজরত শাহজালাল (রহ.)-এর মাজারের দ্বিতীয় গেট এলাকা থেকে তাদের আটক করেছে র‌্যাব।

আটককৃতদের নাম হলো বেল্লাল হোসাইন (৪০) ও হীরা মিয়া (২১)।  

র‌্যাব-৯ এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বুধবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হজরত শাহজালাল (রহ.)-এর মাজারের দ্বিতীয় গেটসংলগ্ন পূবালী ব্যাংকের সামনে থেকে একটি মানব কঙ্কালসহ বেল্লালকে আটক করা হয়। পরে তারই দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে হীরা মিয়াকে আটক করা হয়। পরে তাদের দেওয়া তথ্য মতে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজের হিস্টোলজি বিভাগ থেকে আরো দুটি মানব কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব-৯-এর সহকারী পুলিশ সুপার (গণমাধ্যম) মোহাম্মদ জিয়াউল হক জানান, আটককৃতরা পাঁচ-ছয় বছর ধরে অবৈধভাবে মানুষের কঙ্কাল বিক্রি করে আসছিল। সিলেট শহরতলির কালাগুল এলাকার হজরত বিয়াবন শাহ পীরের মাজারের প্রধান খাদেম জনৈক পংকি মিয়া তাদের কঙ্কাল সরবরাহ করত বলে জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে এই দুই ব্যবসায়ী।

বেল্লাল হোসাইনের স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে র‌্যাব জানায়, খাদেম পংকি মিয়া কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে বিভিন্ন রাসায়নিক দ্রব্য প্রয়োগ করে কঙ্কালে পরিণত করে এবং পরবর্তী সময়ে চাহিদা অনুযায়ী তাদের সরবরাহ করত। ওই খাদেমকে আটক করতে র‌্যাব অভিযান চালাচ্ছে বলে র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়।


মন্তব্য