kalerkantho


নির্বাচন-উত্তর সহিংসতা

আট জেলায় গুলিবিদ্ধসহ আহত ১০৪

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ এপ্রিল, ২০১৬ ০০:০০



আট জেলায় গুলিবিদ্ধসহ আহত ১০৪

দ্বিতীয় দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পর গতকাল শুক্রবার বিভিন্ন স্থানে আবারও সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। এতে আট জেলায় ১০৪ জন আহত হয়েছে।

এর মধ্যে সাতজন গুলিবিদ্ধ রয়েছে। তাদের গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে গতকাল সকালে মাদারীপুরে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাড়িতে হামলা করা হয়েছে। এ ছাড়া ভোলা, ভূঞাপুর ও শেরপুরে ব্যাপক সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। এর আগের দিন বৃহস্পতিবার নির্বাচনের দিন সহিংসতায় ৯ জন নিহত ও প্রায় ৪০০ জন আহত হয়। বিস্তারিত আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে—

মাদারীপুর সদর উপজেলার কুনিয়া ইউনিয়নের দিয়াপাড়া গ্রামে গতকাল সকালে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে সাতজন গুলিবিদ্ধসহ ১৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মাদারীপুর সদর উপজেলার কুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী সানোয়ার হোসেন এবং আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সাহেব আলী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন।

নির্বাচনে আওয়ামী লীগের অন্য বিদ্রোহী প্রার্থী অমিত হাসান কবিরের কাছে ওই দুজনই পরাজিত হন। এ নিয়ে নির্বাচনের পর বৃহস্পতিবার রাত থেকে দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে ক্ষোভ ও উত্তেজনা দেখা দেয়।

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গার টগরবন্ধ ইউনিয়নের শিকারপুর গ্রামে ইউপি সদস্য পদে ভোটে হেরে হিন্দু ধর্মালম্বী লোকজনের বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর, মারধর  ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এ হামলার ঘটনায় ছয় নারীসহ সাতজন আহত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে গত বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে আহত করেছে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকরা।

ভোলায় নির্বাচনোত্তর সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে বিজয়ী মেম্বার প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা পরাজিত মেম্বার প্রার্থীর কর্মী ও সমর্থকদের বাড়ি-ঘরে হামলা চালিয়ে মারধর করার খবর পাওয়া গেছে। এতে অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছে। পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ মারার অভিযোগও পাওয়া গেছে।

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে নির্বাচনত্তোর সহিংসতায় বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনায় মহিলাসহ আহত হয়েছে কমপক্ষে ১৩ জন। গতকাল সকালে গোবিন্দাসী ইউনিয়নের রুবেল হোসেন নামে এক ইউপি সদস্য প্রার্থী পরাজিত হয়ে নির্বাচিত ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলামের বাড়িতে  হামলা চালায়।

শেরপুরের নকলা ও শ্রীবরদীতে ইউপি নির্বাচনোত্তর পৃথক দুটি সহিংসতার ঘটনায় চারজন আহত এবং আটটি বাড়ী ও দোকানপাট ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল সকালে শ্রীবরদী উপজেলার কাকিলাকুড়া ইউনিয়নের খনচেপাড়া গ্রামে পরাজিত এক সদস্য প্রার্থীর বিক্ষুব্ধ সমর্থকদের হামলায় জয়ী সদস্য প্রার্থীর চার সমর্থক আহত হয়েছে।

যশোরে নির্বাচনবিধি ভঙ্গের অভিযোগে যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদারের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। যশোরের সহকারী পুলিশ সুপার ভাস্কর সাহা জানান, নির্বাচন বিধিমালা ২০১০-এর ৭৩ ধারা লঙ্ঘনের কথা উল্লেখ করে শাহীন চাকলাদার ও অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা  করা হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর ও আশুগঞ্জে গতকাল পৃথক সংঘর্ষ হয়েছে। এতে অন্তত ৩০ জন আহত হয়। আশুগঞ্জে গত বৃহস্পতিবারও একই ঘটনায় সংঘর্ষ হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত ১০ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করেছেন।

নাটোরের লালপুরে বিজয়ী ইউপি মেম্বর প্রার্থীর সমর্থকরা পরাজিত মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের ২৩টি বাড়িতে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। গতকাল সকাল ১০টায় উপজেলার লালপুর ইউনিয়নের বাকনাই এবং খাঁপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পাবনার ফরিদপুর উপজেলার বৃলাহিড়ীবাড়ী ইউনিয়নে গতকাল নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় পরাজিত দুই ইউপি সদস্যের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ২০ জন আহত হয়েছে।

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার কেয়াইন  ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড ইসলামপুর  গ্রামে গতকাল দুপুরে বিজয়ী ও পরাজিত মেম্বার প্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় একজন টেঁটাবিদ্ধসহ পাঁচজন আহত হয়েছে।


মন্তব্য