kalerkantho

শুক্রবার । ২০ জানুয়ারি ২০১৭ । ৭ মাঘ ১৪২৩। ২১ রবিউস সানি ১৪৩৮।


উদীচীর গণসংগীত উৎসব শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ এপ্রিল, ২০১৬ ০০:০০



উদীচীর গণসংগীত উৎসব শুরু

সংগীতের সুরে মানুষ, স্বদেশ ও বিশ্ব জাগানোর প্রত্যয় নিয়ে শুরু হলো উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর ‘সত্যেন সেন গণসংগীত উৎসব ও জাতীয় গণসংগীত প্রতিযোগিতা-২০১৬’। গতকাল শুক্রবার বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে দুই দিনব্যাপী এ উৎসবের উদ্বোধন করেন বিশিষ্ট লোকশিল্পী গৌরাঙ্গ আদিত্য। আমন্ত্রিত বিদেশি অতিথি ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের গণসংগীতশিল্পী বিপুল চক্রবর্তী ও অনুশ্রী চক্রবর্তী। আরো উপস্থিত ছিলেন ছড়াকার আখতার হুসেন, সাংবাদিক শুভ রহমান এবং উদীচীর প্রতিষ্ঠাতা সত্যেন সেনের স্নেহধন্য ও আত্মগোপন থাকাকালীন তাঁর পরিচর্যাকারী আমেনা আক্তার। উদ্বোধনী পর্বে ‘সংগীতে জাগো’ শীর্ষক গীতি-আলেখ্য পরিবেশন করেন উদীচীর শিল্পীরা।

আজ শনিবার বিকেলে উৎসব মঞ্চে জাতীয় পর্যায়ে বিজয়ী প্রতিযোগীদের সনদপত্র ও সম্মাননা দেওয়া হবে। আগামীকাল বিকেল ৪টা থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে দেশের খ্যাতনামা গণসংগীত দল ও একক শিল্পীদের পরিবেশনা রয়েছে।

গ্রাম থিয়েটারের জাতীয় কাউন্সিল ও নাট্য উৎসব : ছয় বছর পর জাতীয় কাউন্সিল ও নাট্যপালা উৎসব করল বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার। গতকাল শিল্পকলা একাডেমির উন্মুক্ত মঞ্চে হাজারো প্রতিনিধির অংশগ্রহণে সফলভাবে শেষ হলো গ্রাম থিয়েটারের দুই দিনের জাতীয় সম্মেলন। সম্মেলন ছাড়াও ছিল সংগঠনটির অন্তর্ভুক্ত দলগুলোর অংশগ্রহণে দিন-রাতব্যাপী সাংস্কৃতিক আয়োজন।

বিকেলে বর্ণাঢ্য আয়োজনের উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুুহিত। কনকচাঁপার ছবির প্রদর্শনী : গানের পাখি কনকচাঁপার আঁকা ৭২টি ছবি নিয়ে শিল্পকলা একাডেমিতে শুরু হলো ‘দ্বিধার দোলাচল ২০১৬’ শীর্ষক তিন দিনের প্রদর্শনী। গতকাল একাডেমির চিত্রশালার চার নম্বর গ্যালারিতে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ।

আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ ‘থ্রি শ্যাডোস অব আর্ট’ :‘থ্রি শ্যাডোস অব আর্ট’ শিরোনামে ঢাকার আলিয়ঁস ফ্রঁসেজের লা গ্যালারিতে শুরু হলো শিল্পী মো. রাশেদ আলমের প্রথম একক চিত্র প্রদর্শনী। গতকাল বিকেলে প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন চিত্রশিল্পী সমরজিৎ রায় চৌধুরী, ভাস্কর ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী, শিল্প সমালোচক মইনুদ্দীন খালেদ এবং অধ্যক্ষ গোবিন্দ রায়।


মন্তব্য