kalerkantho

বুধবার । ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ । ৫ মাঘ ১৪২৩। ১৯ রবিউস সানি ১৪৩৮।


ক্রেতা ও দর্শনার্থীর ভিড়ে মুখর ঢাকা মোটর শো

আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় তিন দিনব্যাপী এই আয়োজন শেষ হচ্ছে আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ এপ্রিল, ২০১৬ ০০:০০



ক্রেতা ও দর্শনার্থীর ভিড়ে মুখর ঢাকা মোটর শো

আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার বসুন্ধরায় গতকাল তিন দিনব্যাপী ঢাকা মোটর শোর দ্বিতীয় দিনে আগত দর্শকরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

রাজধানীর কুড়িলে আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি, বসুন্ধরা এখন ক্রেতা-দর্শনার্থীর পদচারণায় মুখর। জমে উঠেছে এখানে আয়োজিত তিনদিনব্যাপী ঢাকা মোটর শো। সেমস গ্লোবাল আয়োজিত গাড়ি ও মোটরসাইকেল নিয়ে প্রদর্শনী চলবে আজ শনিবার রাত ৮টা পর্যন্ত।

অটোমোটিভ, কার, বাইক ও অটো যন্ত্রাংশ শিল্পের সর্ববৃহৎ আন্তর্জাতিক এই প্রদর্শনীতে বাংলাদেশসহ ১৫টি দেশ অংশ নিয়েছে। এতে স্টল রয়েছে সাড়ে তিনশ’। দেশি-বিদেশি প্রতিষ্ঠানগুলো এসব স্টলে অত্যাধুনিক গাড়ি, মোটরসাইকেল, লুব্রিকেন্ট, সিএনজি রূপান্তরসহ বিভিন্ন প্রযুক্তি ও অটো যন্ত্রাংশ প্রদর্শন করছে।

আয়োজকরা জানান, ঢাকা মোটর শো শিরোনামের এই আয়োজনে দেশের মোটর শিল্পের তিনটি খাতের প্রদর্শনী চলছে। এগুলো হলো—১১তম ঢাকা মোটর শো, দ্বিতীয় ঢাকা বাইক শো ও ঢাকা অটোপার্টস শো। গত বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া এই প্রদর্শনীর দ্বিতীয় দিনে গতকাল শুক্রবার ক্রেতা-দর্শকরা ব্র্যান্ড নিউ গাড়ি, যন্ত্রাংশ, উপকরণ ও নতুন নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে পরিচিত হন।

প্রদর্শনীর বিভিন্ন স্টলে ঘুরে দেখা যায়, আধুনিক প্রযুক্তি-সংবলিত মোটর গাড়ি ও মোটরসাইকেলের বিশাল সম্ভার তুলে ধরা হয়েছে ক্রেতা-দর্শনার্থীর সামনে। ক্রেতাদের পাশাপাশি দেশের মোটরশিল্পের উদ্যোক্তারাও স্টলগুলো ঘুরে ঘুরে দেখছেন। আর আগ্রহীদের মোটর-সংশ্লিষ্ট শিল্পের বিভিন্ন সরঞ্জাম সম্পর্কে ধারণা দিচ্ছেন স্টলকর্মীরা। কম মূল্যে গাড়ি কিনতে ইচ্ছুকদের জন্য ব্যাংক ঋণপ্রাপ্তিতে সহযোগিতাও করা হচ্ছে মেলায়।  

আয়োজক প্রতিষ্ঠান সেমস গ্লোবালের ম্যানেজার (কো-অর্ডিনেটর) মো. শরীফ হোসেন বলেন, ‘বাংলাদেশে দ্রুত অগ্রসরমান অটোমোটিভ ও অটো-কম্পোনেন্ট খাতকে বেগবান করতে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। বিশেষত আজ (গতকাল) ছুটি থাকায় মেলায় ক্রেতা ও দর্শনার্থীর যেন ঢল নেমেছে। বস্তুত গাড়ি কিনতে ইচ্ছুকরা বছরের এই সময়টার অপেক্ষায় থাকেন। কেননা এই সময় একই ছাদের নিচ থেকে নিজের পছন্দের গাড়িটি বেছে নেওয়া তাদের জন্য সহজ হয়। এবারের প্রদর্শনীতে ক্রেতা, দর্শক ও উদ্যোক্তারা ব্র্যান্ড নিউ গাড়ি, যন্ত্রাংশ, আনুষঙ্গিক উপকরণ ও নতুন নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে পরিচিত হওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন।

শরীফ হোসেন জানান, এই আয়োজন বাংলাদেশে অটোমোটিভ, বাইক ও অটো যন্ত্রাংশ শিল্পের বাজার সমপ্রসারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। আর প্রদর্শনীর শেষ দিনে আজ রোড শো নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা থাকবে।

ঢাকা বাইক শো শিরোনামের এই আয়োজনে গোল্ড স্পন্সর হিসেবে রয়েছে সুজুকি। আর সিলভার স্পন্সর এটলাস বাংলাদেশ লিমিটেড। আজ শেষ দিনে সকাল সাড়ে ১০টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত প্রদর্শনী সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।


মন্তব্য