kalerkantho


নার্সদের বিক্ষোভে পুলিশের রাবার বুলেট পিপার স্প্রে

আহত ৩০ আন্দোলনকারী ২২ জন আটক ৭

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



নার্সদের বিক্ষোভে পুলিশের রাবার বুলেট পিপার স্প্রে

রাজধানীর শাহবাগে গতকাল অবরোধ চলাকালে জলকামান ও লাঠিপেটা করে আন্দোলনরত নার্সদের ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুলিশ। ছবি : কালের কণ্ঠ

সিনিয়র স্টাফ নার্স নিয়োগসংক্রান্ত পিএসসির বিজ্ঞপ্তি বাতিলের দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে নার্সদের দুটি সংগঠনের সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পণ্ড করে দিয়েছে পুলিশ।

অবরোধকারীদের হটানোর জন্য জলকামান, সাউন্ড গ্রেনেড, কাঁদানে গ্যাস, পিপার স্প্রে, রাবার বুলেট ব্যবহার ও লাঠিপেটা করা হয়। এতে ৩০ জন আন্দোলনকারী আহত হয়। ২২ জনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর ১৩ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়। সাতজনকে আটক করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ৮ ডিসেম্বর নার্স নিয়োগপ্রক্রিয়া বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। এ সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে আসছে বেকার নার্সরা। গত সোমবার পিএসসি তিন হাজার ৬১৬ জন সিনিয়র স্টাফ নার্স নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করায় তারা আরো ক্ষিপ্ত হয়।

নার্স নেতারা জানান, পরীক্ষার মাধ্যমে নার্স নিয়োগের সরকারি সিদ্ধান্ত বাতিল করার জন্য এবং আগের মতো ৩৬ বছর পর্যন্ত বয়স প্রমার্জনা করে ডিপ্লোমা বেকার নার্সদের ব্যাচ, মেধা ও জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়ার জন্য তাঁরা আন্দোলন করছেন। কিন্তু তাঁদের দাবি উপেক্ষা করে সরকার নতুন নার্স নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে।

গতকাল বুধবার শাহবাগে বেকার নার্সদের প্রতিবাদ-সমাবেশ থেকে বলা হয়, সরকারের নতুন সিদ্ধান্তের ফলে নিয়োগের নামে কোটি কোটি টাকার বাণিজ্যের সুযোগ তৈরি হবে। নিয়োগপ্রত্যাশী নার্সরা হয়রানির মুখে পড়বে।

বাংলাদেশ ডিপ্লোমা বেকার নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিডিবিএনএ) ও বাংলাদেশ বেসিক গ্র্যাজুয়েট নার্সেস সোসাইটি (বিজিএনএস) গতকাল সকাল ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত বিক্ষোভ ও অবরোধ কর্মসূচি পালন করে। এ দুর্ভোগ পোহাতে হয় সাধারণ মানুষকে। পুলিশ তাদের তুলে দেওয়ার চেষ্টা করলে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। একপর্যায় পুলিশের মারমুখী আচরণে ছত্রভঙ্গ হয়ে যায় আন্দোলনকারীরা।

পণ্ড হওয়ার আগে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কমর্সূচি চলবে বলে ঘোষণা দিয়েছিল আন্দোলনকারীরা। আমরণ অনশনের হুঁশিয়ারিও দেয় তারা।

উল্লেখ্য, গত রবিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচি শুরু করে বিডিবিএনএ। গতকাল সকাল ১০টায় অবরোধ কর্মসূচি শুরু হলে শাহবাগ মোড়ের সড়ক কার্যত অচল হয়ে পড়ে। দুর্ভোগে পড়ে যাত্রীরা। অবরোধকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার পর দুপুর ২টায় যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

পুলিশের রমনা বিভাগের এডিসি ইব্রাহিম খান বলেন, জনদুর্ভোগ ও যানজটের কথা বিবেচনা করে আন্দোলনকারীদের সরে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়। কিন্তু তারা সরেনি। পরে জলকামান, কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার ও লাঠিপেটা করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়। সাতজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।


মন্তব্য