kalerkantho


ভোলায় সংঘর্ষে একজন নিহত, আহত ৩৪

চুয়াডাঙ্গা ও পাবনায় হামলা আগুন ভাঙচুর

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



দ্বিতীয় দফায় ৬৪২ ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার। এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গত মঙ্গলবার রাত থেকে গতকাল বুধবার দুপুর পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষ, হামলা, আগুন ও ভাঙচুরের খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ভোলায় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের দফায় দফায় সংঘর্ষে একজন নিহত ও অন্তত ৩৪ জন আহত হয়েছে। নিহত ব্যক্তির নাম নাসির সরদার (৪০)। তিনি রাজাপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ প্রার্থী মিজানুর রহমানের কর্মী ছিলেন।

এদিকে চুয়াডাঙ্গায় মোমিনপুরে প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ও প্রতিপক্ষ কর্মীর দোকানঘরে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। পাবনার সাথিয়ায় উপজেলা সাবেক সহসভাপতির বাড়িতে হামলার খবর পাওয়া গেছে। বিস্তারিত আমাদের আঞ্চলিক অফিস, নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে : 

ভোলা : ভোলা সদরের রাজাপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগদলীয় প্রার্থী মিজানুর রহমান ও বিদ্রোহী প্রার্থী রেজাউল হক মিঠু চৌধুরীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে মিজানুর রহমানের কর্মী আনিস সরদার নামে একজন নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার রাত থেকে গতকাল দুপুর পর্যন্ত দফায় দফায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ৩৫ জন আহত হয়। এর মধ্যে ২০ জনকে ভোলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় অবস্থার অবনতি হলে ৪-৫ জনকে বরিশাল শেরই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এর মধ্যে আনিস সরদার গতকাল রাত ৮টার দিকে মারা যান। এর আগে বিকেলে পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে। এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গার মোমিনপুর ইউনিয়নে নির্বাচনী অফিস ও প্রতিপক্ষ কর্মীর দোকানঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে আওয়ামী লীগের মনোনীত ও বিদ্রোহী প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা। গত মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পাবনা : পক্ষে কাজ না করায় সাঁথিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতির বাড়িতে দলীয় সম্ভাব্য প্রার্থী জয়নুল আবেদীন হামলা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল সকাল ৯টার দিকে ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নের বিষ্ণুবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এতে একজন আহত হয়েছে। জানা যায়, ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নে দলীয় চারজন প্রার্থী মনোনয়নের জন্য চেষ্টা চালাচ্ছেন। এর মধ্যে জয়নুল আবেদীন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি কার্তিক সাহাকে চাপ দিয়ে আসছিলেন।

খুলনা : সাতক্ষীরার কুমিরা ইউনিয়নের স্থগিত তিন কেন্দ্রসহ গৌরীপুর ও রাঢ়ীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পুনরায় ভোটের দাবি জানিয়েছেন বিএনপির প্রার্থী শেখ মো. গোলাম মোস্তফা। একই সঙ্গে গত ২২ মার্চ নির্বাচনে অনিয়মকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তিনি। গতকাল দুপুরে খুলনা প্রেসক্লাবের হুমায়ূন কবির বালু মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানানো হয়।


মন্তব্য