kalerkantho

26th march banner

‘ডেসটিনির লুট হওয়া সম্পদ ফেরত চাই’

চেয়ারম্যান ও এমডির জামিন দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৯ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



পুলিশ ও প্রভাবশালীদের দখল থেকে ডেসটিনি গ্রুপের সম্পদ রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন প্রতিষ্ঠানটির পরিবেশকরা। কর্মসূচি থেকে ডেসটিনি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রফিকুল আমীন ও ডেসটিনি-২০০০-এর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসাইনের জামিনেরও দাবি জানানো হয়েছে।

গতকাল সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এই মানববন্ধনে প্রতিষ্ঠানটির বিপুলসংখ্যক পরিবেশক অংশ নেন। এ সময় তাঁরা বলেন, রফিকুল আমীন ও মোহাম্মদ হোসাইনের জামিন না হওয়া এবং ডেসটিনি গ্রুপের সম্পদ বেদখল হওয়ায় গ্রুপটির ৪৫ লাখ পরিবারের দুই কোটি মানুষ বেকার হয়ে পড়ছে। এ অবস্থায় গ্রুপের শীর্ষ দুই কর্মকর্তাকে জামিনে মুক্তি দিয়ে ডেসটিনি গ্রুপের সম্পদ রক্ষা ও কর্মসংস্থানের পরিবেশ নিশ্চিতকরণে আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করছি। এ ছাড়া ডেসটিনি গ্রুপের সম্পদ দখল ও লুটের সঙ্গে জড়িতরা প্রতিনিয়ত পরিবেশকদের হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ এনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে জীবনের নিরাপত্তা চান তাঁরা।

মানববন্ধনে পরিবেশকরা বলেন, চার বছর ধরে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) অনুসন্ধান, তদন্ত ও মামলাজনিত জটিলতায় ডেসটিনির স্থাবর-অস্থাবর অর্থসম্পদ ধ্বংস ও লুট হয়ে যাচ্ছে। এসব সম্পদ রক্ষণাবেক্ষণের কোনো কর্তৃপক্ষ নেই। ৪৫ লাখ পরিবেশকের রুটি-রোজগারের প্রতিষ্ঠান ডেসটিনির ব্যবসায়িক কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়ার কথা উল্লেখ করে তাঁরা বলেন, এর ফলে কর্ম হারিয়ে প্রায় দুই কোটি মানুষ মানবেতর জীবনযাপন করছে। অন্যদিকে প্রায় ৪০ মাস ধরে কারাগারে বিনা বিচারে মানবেতর জীবনযাপন করছেন অসুস্থ রফিকুল আমীন ও মোহাম্মদ হোসাইন।

ডেসটিনি গ্রুপের বেহাত হওয়া সম্পদের বর্ণনা তুলে ধরে পরিবেশকরা বলেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি এবং দাবি করছি, ডেসটিনির সব প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা আছে বলেই আজ পর্যন্ত আমাদের কোনো বিনিয়োগকারী, শেয়ারহোল্ডার, ক্রেতা-পরিবেশকের পক্ষ থেকে প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে বা এর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে কোনো মামলা হয়নি। ’


মন্তব্য