kalerkantho

26th march banner

তৃতীয় পর্বে সব ইউনিয়নে প্রার্থী নেই বিএনপির

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



তৃতীয় পর্বের ইউপি নির্বাচনেও বিএনপি সব ইউনিয়নে প্রার্থী দিতে পারেনি। গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলায় ১৪টি ইউনিয়নের মধ্যে মাত্র চারটি ইউনিয়নে প্রার্থী দিতে পেরেছে দলটি। খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় তিনটি ইউপির মধ্যে একটিতে বিএনপির প্রার্থী নেই। আর এ দফায় আওয়ামী লীগও বিদ্রোহশূন্য হতে পারেনি।

কালের কণ্ঠ’র স্থানীয় প্রতিনিধিরা জানান, মেহেরপুরের সদর উপজেলার চারটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের পাঁচ বিদ্রোহীসহ ১৬ প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের চারজন, বিএনপির চারজন, জামায়াতের একজন (বুড়িপোতা ইউপিতে স্বতন্ত্র পরিচয়ে) এবং দুজন স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন। সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৩৮ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ১৯০ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

আওয়ামী লীগের বিদ্রোহীরা হলেন আমঝুপি ইউপিতে জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক মোল্লা, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিয়ার রহমান, পিরোজপুরে সালেহ আল আজিজ টনিক বিশ্বাস, বুড়িপোতায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আমিরুল ইসলাম ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আবুল হাশেম। খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১৭ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

এ উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নের মধ্যে তিন ইউনিয়নে তৃতীয় ধাপে ২৩ এপ্রিল নির্বাচন হবে। এর মধ্যে ১ নম্বর মেরুং ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ছয়জন, ২ নম্বর বোয়ালখালী ইউনিয়নে পাঁচজন এবং ৩ নম্বর কবাখালী ইউনিয়নে ছয়জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ৩ নম্বর কবাখালী ইউনিয়নে বিএনপি প্রার্থী দেয়নি।

সুনামগঞ্জের তিন উপজেলার ২৬টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১৬৪ জন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। সেখানে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামেরও প্রার্থী রয়েছেন। আওয়ামী লীগেই রয়েছেন অর্ধশতাধিক বিদ্রোহী প্রার্থী।


মন্তব্য