kalerkantho


এবার জামায়াত নেতাকে সমর্থন এমপি বদির!

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

২৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি এবার টেকনাফ উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জামায়াতের এক নেতাকে সমর্থন দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে এলাকায় তোলপাড় চলছে। স্থানীয় দলীয় সূত্র বলছে, আওয়ামী লীগের এমপি হয়ে দলীয় প্রতীকের প্রার্থীর বদলে স্বাধীনতাবিরোধী পক্ষ জামায়াতের নেতাকে বদির সমর্থন দেওয়ার বিষয়টি দলের হাইকমান্ডকে জানানো হয়েছে।

গতকাল টেকনাফের হোয়াইক্যং ও হ্নীলা ইউপি নির্বাচনে ভোট নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে বদি হোয়াইক্যংয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী নুর আহমদ আনোয়ারীকে সমর্থন দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। আনোয়ারী জেলা জামায়াতে ইসলামীর সাংগঠনিক সম্পাদক। এর আগে তিনি টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। ভোট গণনা শেষে গতকাল রাতে তাঁকে বেসরকারিভাবে হোয়াইক্যং ইউপির চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়েছে। তবে তাঁকে এমপি বদির সমর্থন দেওয়ার অভিযোগে গতকাল কক্সবাজারের বিভিন্ন স্থানে ছাত্রলীগের কর্মীরা সড়ক অবরোধ করে।

টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক দলীয় এমপি অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী গতকাল সন্ধ্যায় কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এমপি বদি আজ (গতকাল) অনুষ্ঠিত নির্বাচনে হোয়াইক্যং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জামায়াত নেতা এবং বৌদ্ধমন্দিরে হামলার প্রধান হোতা নুর আহমদ আনোয়ারীকে সমর্থন দিয়েছেন, এ কথা বলতেও লজ্জাবোধ করছি। ’ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান বলেন, ‘এমপি বদি এর আগে বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীদের সমর্থন দিয়েছিলেন। তবে আজকের নির্বাচনে একদম প্রকাশ্যে জামায়াত নেতার পক্ষে কাজ করে তিনি আরেক কলঙ্কের ইতিহাস স্থাপন করেছেন। ’

হোয়াইক্যং ইউপিতে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ফরিদুল আলমও শুরু থেকেই অভিযোগ করছিলেন, এমপি বদি জামায়াত নেতাকে সমর্থন দিচ্ছেন।

এমপি বদির সমর্থনের বিষয়ে কথা বলতে গতকাল রাতে একাধিকবার আনোয়ারীর মোবাইলে ফোন করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এমপি আবদুর রহমান বদি। গতকাল তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তিনি নির্বাচন কমিশনের আচরণবিধি মেনে চলছেন। বাস্তবে তিনি ইউপি নির্বাচনে কোনো পক্ষকেই সমর্থন করেননি। ’


মন্তব্য