kalerkantho

26th march banner

বিভাগীয় শহরে মহান স্বাধীনতা দিবস উদ্‌যাপন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



বিভাগীয় শহরে মহান স্বাধীনতা দিবস উদ্‌যাপন

যথাযথ মর্যাদায় গতকাল শনিবার দেশের বিভাগীয় শহরগুলোতে মহান স্বাধীনতা দিবস উদ্‌যাপিত হয়েছে। শহীদদের স্মরণ, মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা, শিশুদের কুচকাওয়াজ, শোভাযাত্রা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা—এসব আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদ্‌যাপিত হয় দিবসটি। বিস্তারিত আমাদের আঞ্চলিক অফিস থেকে পাঠানো খবরে—

চট্টগ্রাম : দিবসের প্রথম প্রহরে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শহীদদের শ্রদ্ধা জানায় চট্টগ্রামবাসী। এ ছাড়া পুলিশের একটি দল শহীদ মিনারে গার্ড অব অনার প্রদান করে। এরপর ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদের পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা দিবসের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।

খুলনা : জেলা প্রশাসনসহ রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে পৃথকভাবে নানা কর্মসূচি আয়োজন করে। এসবের মধ্যে ছিল শহীদ স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণ, তোপধ্বনি, জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতীয় সংগীত পরিবেশনা, মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা, আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

রাজশাহী : দিবসের প্রথম প্রহরেই রাজশাহী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে। এ ছাড়া প্রথম প্রহরে নগরীর ভুবন মোহন পার্কে রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে সংসদ সদস্য আক্তার জাহান ফুল দিয়ে শহীদদের শ্রদ্ধা জানান। একই সময়ে রাজশাহী কলেজ শহীদ মিনারে রাজশাহী মহানগর বিএনপির পক্ষ থেকে মিজানুর রহমান মিনু পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এদিকে রাজশাহী কলেজে বিশাল মানবপতাকা তৈরি করা হয়। তাতে অংশ নেয় দুই হাজার শিক্ষার্থী।

বরিশাল : বরিশালে আলোর মিছিল ও পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে দিবসের উদযাপন শুরু হয়। অন্যান্য আয়োজনের মধ্যে ছিল আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। আলোর মিছিলের আয়োজন করে বরিশালের সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সাংস্কৃতিক কর্মীরা। আর বিকেলে অশ্বিনী কুমার টাউন হলে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে হয় আলোচনা সভা।

রংপুর : দিবসটি উপলক্ষে বিভাগীয় এবং জেলা প্রশাসন, রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচি আয়োজন করে। এর মধ্যে শহীদদের শ্রদ্ধা জানানোর পাশাপাশি রংপুর স্টেডিয়ামে কুচকাওয়াজ ও সমাবেশের আয়োজন করা হয়। নগরের টাউন হলে সংবর্ধনা দেওয়া হয় মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের। এ ছাড়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে জেলা প্রশাসন। নানা কর্মসূচি  উদ্‌যাপিত হয় বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়েও।

সিলেট : দিবসের প্রথম প্রহরে সিলেট শহীদ মিনার বাস্তবায়ন পরিষদ নেতৃবৃন্দের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে শুরু হয় শ্রদ্ধা নিবেদন। এরপর ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট জেলা ও মহানগর ইউনিটের নেতারা। মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পর অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের পক্ষে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা শ্রদ্ধা নিবেদন করে।


মন্তব্য