kalerkantho

26th march banner

তনু হত্যার বিচার দাবিতে দেশজুড়ে বিক্ষোভ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৫ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



তনু হত্যার বিচার দাবিতে দেশজুড়ে বিক্ষোভ

কুমিল্লার ভিক্টোরিয়া কলেজের ছাত্রী ও সংস্কৃতিকর্মী সোহাগী জাহান তনু হত্যার বর্বর ঘটনার প্রতিবাদ ও বিচারের দাবিতে দেশজুড়ে বিক্ষোভ হয়েছে। দেশের ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, জাহাঙ্গীরনগর, জগন্নাথ, খুলনা, বাংলাদেশ কৃষি ও শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়সহ বেশির ভাগ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং স্কুল ও কলেজের ক্যাম্পাস, স্থানীয় শহীদ মিনার ও প্রেস ক্লাবগুলোতে সামাজিক, সাংস্কৃতিক, নারী অধিকার ও মানবাধিকার সংগঠনের কর্মীরা তনু হত্যার বিচারের দাবিতে স্লোগান তুলেছে। কোথাও কোথাও পালিত হয়েছে মানববন্ধন কর্মসূচি। কালের কণ্ঠের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

ঢাকায় প্রতিবাদ : ভিক্টোরিয়া কলেজের ইতিহাস বিভাগের স্নাতক (সম্মান) দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সোহাগী জাহান তনু হত্যায় জড়িতদের বিচার দাবিতে গতকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল ও পথসভা করে। বিশ্ববিদ্যালয় সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট ও ছাত্র ফেডারেশন পৃথকভাবে বিক্ষোভ কর্মসূচির আয়োজন করে। গণজাগরণ মঞ্চ গতকাল এক বিবৃতিতে জানায়, তনুকে নির্মমভাবে হত্যার প্রতিবাদে আজ শুক্রবার বিকেল ৪টায় শাহবাগে গণসমাবেশ করা হবে। নারী অধিকার সংগঠন ‘কর্মজীবী নারী’ তনুর খুনিদের বিচারের দাবি জানিয়ে গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধনের আয়োজন করে। মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে বাংলাদেশ লেবার স্টাডিজ ইনস্টিটিউট-বিলস ও জাতীয় নারী জোট। বিকেল ৪টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে নারী সংহতি। তনু হত্যায় জড়িতদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে ‘সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন’।

কুমিল্লায় ব্যাপক বিক্ষোভ : কুমিল্লা নগরীতে সোহাগী জাহান তনুর প্রিয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভিক্টোরিয়া কলেজসহ কয়েকটি কলেজের কয়েক হাজার শিক্ষার্থী এবং সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মী ও সাধারণ মানুষ বিক্ষোভে যোগ দেয়। গতকাল সকাল থেকেই কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজে কলা ভবনের সামনে শিক্ষার্থীরা আসতে থাকে। তারা ক্লাস বর্জন করে প্রস্তুতিমূলক সভা শেষে কলেজ থেকে মিছিল নিয়ে নগরীর কান্দিরপাড়ে এসে জমা হয়। এ ছাড়া মিছিল নিয়ে এসে বিক্ষোভে যোগ দেয় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ থিয়েটার, কুমিল্লা সরকারি মহিলা কলেজ, কুমিল্লা সরকারি কলেজ, ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, অধুনা থিয়েটার ও কুমিল্লা সরকারি কলেজ থিয়েটারের শিক্ষার্থী ও সংস্কৃতিকর্মী এবং সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মী ও শিক্ষক, অভিভাবকসহ সর্বস্তরের মানুষ। তারা তনু হত্যার বিচারের দাবিতে স্লোগানে  স্লোগানে মুখরিত করে তোলে কান্দিরপাড় এলাকা। শিক্ষার্থীরা ব্যানার, প্ল্যাকার্ড ও পোস্টার বহন করে। তারা সড়কের ওপর ড্রাম ফেলে, শুয়ে-বসে অবস্থান নেয়। এতে চার ঘণ্টাব্যাপী উভয় দিকের যানচলাচল বন্ধ থাকে।

খবর পেয়ে কুমিল্লা কোতোয়ালি থানার ওসি আবদুর রব ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। ওসি বিক্ষুব্ধ জনতার উদ্দেশে বলেন, পুলিশ ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন ও হত্যাকাণ্ড সংঘটনের ব্যাপারে বিশেষজ্ঞ মতামতের অপেক্ষায় আছে। এ ঘটনায় পুলিশের ওপর আস্থা রাখার অনুরোধ জানান ওসি। নিহত তনুর নিজ উপজেলা কুমিল্লার মুরাদনগর ও কুমিল্লার লাকসাম পৌর শহরের বাইপাস এলাকায় স্থানীয় সংস্কৃতিকর্মীদের উদ্যোগে আয়োজিত এ মানববন্ধনে সর্বস্তরের ছাত্র-জনতা অংশ নেয়।

অন্যান্য স্থানে বিক্ষোভ : সোহাগী জাহান তনু হত্যার বিচারের দাবিতে সিলেটেও বিভিন্ন সংগঠন সভা-সমাবেশ, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে। গতকাল শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ, এমসি কলেজের শিক্ষার্থীরা পৃথক কর্মসূচি পালন করে। কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের চলচ্চিত্র সংসদের আয়োজনে গতকাল দুপুরে মানববন্ধনে কয়েক শ শিক্ষার্থী অংশ নেয়। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের হাদী চত্বরে সকালে মানববন্ধনের আয়োজন করে সাধারণ শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। এ ছাড়া খুলনা নগরীর পিকচারপ্যালেস মোড়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে দুপুরে সাধারণ শিক্ষার্থী এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইউনিয়নের ব্যানারে পৃথক কর্মসূচি পালিত হয়।

গতকাল দুপুরে মৌলভীবাজার সরকারি মহিলা কলেজের সামনে ঘণ্টাব্যাপী শিক্ষার্থীদের আয়োজিত মানববন্ধনে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেয়। ফেনী শহরের ট্রাংক রোডে শহীদ মিনারের সামনে সকালে মানববন্ধন করে ‘আমরা ক’জন স্বেচ্ছাসেবক’ নামের একটি সমাজসেবী সংগঠন। মানববন্ধনে ফেনী সরকারি কলেজ, জিয়া মহিলা কলেজ, বালিকা বিদ্যানিকেতনসহ ফেনীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। সাতক্ষীরা প্রেস ক্লাবের সামনে সকালে মানববন্ধন ও সমাবেশের আয়োজন করে হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডার ফোরাম।


মন্তব্য