kalerkantho


ছাত্রী সোহাগী খুন

ভিক্টোরিয়া কলেজে বিক্ষোভ, রেলপথ অবরোধের হুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

২৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের ইতিহাস বিভাগের বিএ (সম্মান) দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী সোহাগী জাহান তনু (২০) হত্যার বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে কলেজের শিক্ষার্থীরা। নাট্যকর্মী ও সংস্কৃতিকর্মী সোহাগী খুন হওয়ার ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার উত্তাল হয়ে ওঠে ক্যাম্পাস। শিক্ষার্থীরা খুনিদের গ্রেপ্তারের দাবিতে ৪৮ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়ে রেললাইন অবরোধের হুমকি দিয়েছে।

গত রবিবার রাতে কুমিল্লা সেনানিবাসের আবাসিক এলাকা পাহাড় হাউসসংলগ্ন জঙ্গল থেকে সোহাগীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। রাস্তায় পড়ে থাকা ছেঁড়া চুল, জুতা ও মোবাইল ফোন দেখে তাঁর মৃতদেহের সন্ধান পেয়েছিলেন তাঁর বাবা। মৃতদেহের জামাকাপড়ও ছেঁড়া ছিল। খবর পেয়ে রবিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

নিহত সোহাগীর বাবা ইয়ার হোসেন কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের অফিস সহায়ক পদে কর্মরত। সেনানিবাস এলাকায় একটি কলোনিতে মা-বাবার সঙ্গে থাকতেন সোহাগী। তিনি ভিক্টোরিয়া কলেজ থিয়েটারের মেধাবী কর্মী হিসেবে পরিচিত ছিলেন।

রবিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে টিউশনি শেষে নিজ বাসার উদ্দেশে বের হন সোহাগী। এরপর তাঁর আর খোঁজ পাওয়া যায়নি। পরে বাবা পাহাড় হাউস এলাকায় কালভার্টের কাছে সোহাগীর লাশ পেয়ে পুলিশকে জানান। ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার মুরাদনগরের মীর্জাপুরে তাঁর লাশ দাফন করা হয়। এ ঘটনায় সোহাগীর বাবা ইয়ার হোসেন কুমিল্লা কোতোয়ালি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

সোগাহীর লাশ উদ্ধারের খবর ছড়িয়ে পড়লে গতকাল সকাল থেকেই বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে জড়ো হতে থাকে। তারা হত্যাকারীদের শনাক্ত করে দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবিতে মঙ্গলবার ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করে। মানববন্ধনে কলেজ অধ্যক্ষসহ শিক্ষক এবং ক্যাম্পাসভিত্তিক বিভিন্ন সংগঠনের কর্মীরা অংশ নেয়।


মন্তব্য