kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ । ৪ মাঘ ১৪২৩। ১৮ রবিউস সানি ১৪৩৮।


‘জাপানকে কাজ না দিলে অর্থায়ন বন্ধের হুমকি’

সহযোগিতা দিয়ে যাওয়ার আশ্বাস জাইকার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



কালের কণ্ঠে গত ১৭ মার্চ ‘জাপানকে কাজ না দিলে অর্থায়ন বন্ধের হুমকি’ শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ব্যাখ্যা দিয়েছে ঢাকায় জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগী সংস্থা (জাইকা)। সংস্থাটি বলেছে, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের থার্ড টার্মিনালের নির্মাণকাজ না পেলে জাপান ভবিষ্যতে বাংলাদেশের উন্নয়ন প্রকল্পে অর্থায়ন করবে না বলে প্রতিবেদনে যে কথা বলা হয়েছে, সেটি সঠিক নয়। বরং সহযোগিতা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

জাইকার ঢাকা কার্যালয়ের প্রধান প্রতিনিধি মিকিও হাতায়েদা বলেন, ‘শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের থার্ড টার্মিনাল নির্মাণ প্রকল্প নিয়ে ২০১৪ সাল থেকেই সরকারের সঙ্গে জাপানের কথাবার্তা চলছিল। ওই বছর বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় প্রকল্পটিতে অর্থায়ন করতে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) মাধ্যমে জাপানকে অনুরোধ জানায়। সরকারের পক্ষ থেকে অনুরোধ পাওয়ার পর থেকে জাইকার প্রতিনিধিদল নিয়মিত প্রকল্পটি নিয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে যোগাযোগ করে আসছে। কিন্তু আমরা কখনো এ প্রক্রিয়া এবং যোগাযোগের কথা কারো কাছে প্রকাশ করিনি। ’

মিকিও হাতায়েদা আরো বলেন, ‘সচিবালয়ে বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ে বাংলাদেশ ও জাপানের মধ্যকার বৈঠকে ঢাকায় জাপান দূতাবাসের মিনিস্টার তাকেশি মাতসুনাগাসহ জাপান দূতাবাসের কোনো কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন না। অথচ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঢাকায় জাপান দূতাবাসের মিনিস্টার তাকেশি মাতসুনাগাসহ দূতাবাসের কয়েকজন বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। ’

সহযোগিতা অব্যাহত থাকার কথা জানিয়ে মিকিও হাতায়েদা বলেন, ‘পারস্পরিক বিশ্বাস ও ভালোবাসার ওপর ভিত্তি করে আমরা বাংলাদেশকে সহযোগিতা করে যাব এবং এ সহযোগিতা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে। ’

উল্লেখ্য, ১৭ মার্চ কালের কণ্ঠ’র প্রথম পাতায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, জাপানকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের থার্ড টার্মিনাল নির্মাণকাজ না দিলে দেশটি ভবিষ্যতে বাংলাদেশের উন্নয়ন প্রকল্পে অর্থায়ন বন্ধ করে দেবে।


মন্তব্য