kalerkantho

শনিবার । ২১ জানুয়ারি ২০১৭ । ৮ মাঘ ১৪২৩। ২২ রবিউস সানি ১৪৩৮।


আইন লঙ্ঘন করেই হজের নিবন্ধনে এনআইডি!

প্রাক-নিবন্ধন শুরু হচ্ছে বুধবার

মোশতাক আহমদ   

২১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



হজের প্রাক-নিবন্ধনের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) তথ্যের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে এবার। তবে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এনআইডি নিবন্ধন আইন লঙ্ঘন করেই এ উদ্যোগ নিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। এনআইডি নিবন্ধন আইন, ২০১০ (২০১০ সনের ৩ নং আইন)-এর ধারা ১১-এর ১ উপধারায় বলা হয়েছে, নাগরিক সুবিধা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে নাগরিকদের জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদর্শন ও তার অনুলিপি দাখিলের ব্যবস্থা চালু করিতে পারিবে সরকার। তবে বাংলাদেশের সমগ্র এলাকায় সাধারণভাবে নাগরিকদের অনুকূলে জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান কার্যক্রম সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত কাউকে এনআইডি ব্যবহারে বাধ্যতামূলক করা যাবে না। নির্বাচন কমিশন সচিবালয় ২০১২ সালের ২ আগস্ট এ-সংক্রান্ত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি জারি করে, যা এখনো বলবৎ রয়েছে।  

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, সর্বশেষ ২০১৪-১৫ সালে দেশের প্রায় এক কোটি নাগরিকের এনআইডি তথ্য হালনাগাদ করা হয়েছে। কিন্তু সেসব এনআইডি এখনো বিতরণ শেষ হয়নি। অথচ এ অবস্থার মধ্যেই হজের প্রাক-নিবন্ধনের ক্ষেত্রে এনআইডির তথ্য ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এমনকি যাঁদের এনআইডির তথ্যে ভুল রয়েছে, তাঁরা কত দিনের মধ্যে বা কিভাবে তা সংশোধন করতে পারবেন, সে বিষয়েও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এখনো সুস্পষ্ট কোনো নির্দেশনা দেওয়া হয়নি। তাই অনলাইনে হজের প্রাক-নিবন্ধন নিয়ে শঙ্কায় আছেন হজযাত্রী ও হজ এজেন্সি মালিকরা। যদিও ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান জানিয়েছেন, এনআইডি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের একটি চুক্তি আছে। সে অনুযায়ী ভুল সংশোধনে অগ্রাধিকার পাবেন হজযাত্রীরা। তবে সেটা বাস্তবে কতটা সুফল দেবে, তা নিয়েও শঙ্কা আছে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের।

গতকাল রবিবার থেকেই হজের প্রাক-নিবন্ধন শুরু হওয়ার কথা ছিল। তবে এখন তা শুরু হবে ২৩ মার্চ, চলবে ৩০ মে পর্যন্ত। এ নিবন্ধনের ভিত্তিতেই এবার হজযাত্রীরা আগে আসলে আগে পাবেন ভিত্তিতে হজে যাওয়ার জন্য সিরিয়াল পাবেন। গত বছর হজে যাওয়ার জন্য অনলাইনে নিবন্ধন করেও শেষ মুহূর্তে প্রায় ২৫ হাজার হজযাত্রী বিপাকে পড়েছিলেন। তাই এবার আগেভাগেই নিবন্ধনপ্রক্রিয়া শুরু ও নিবন্ধনের ভিত্তিতে সিরিয়াল অনুযায়ী হজের জন্য অগ্রাধিকার পাবেন হজযাত্রীরা।

গতকাল সচিবালয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে হজের প্রাক-নিবন্ধন কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করতে গিয়ে ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান বলেন, প্রাক-নিবন্ধন ও নিবন্ধন করতে জাতীয় পরিচয়পত্র, (১৮ বছরের কম হলে অভিভাবকের এনআইডির সঙ্গে নিজের জন্ম নিবন্ধন সনদ), পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি, মোবাইল ফোন নম্বর, এমআরপি পাসপোর্ট প্রয়োজন হবে।

মদিনা এয়ার ট্রাভেলসের মালিক মাওলানা ফজলুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন,  ১০ জন রয়েছেন, যাঁদের এনআইডিই নেই। এনআইডি করার সময় এলাকার বাইরে থাকায় তাঁরা এনআইডি করতে পারেননি। জন্ম নিবন্ধন সনদের মাধ্যমেই হজের জন্য পাসপোর্ট করেছেন তাঁরা।


মন্তব্য