kalerkantho


রিজার্ভ লুটে গভর্নর জড়িত থাকতে পারেন না : কাদের

যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংকের দায় আছে : হাছান

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা ও সাভার   

২০ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি যাওয়ার ঘটনার সঙ্গে সাবেক গভর্নর আতিউর রহমানের সংশ্লিষ্টতা থাকতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ওবায়দুল কাদের। একই বিষয়ে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং সাবেক মন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরিতে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ব্যাংকের দায় আছে।

গতকাল শনিবার রাজধানী ঢাকা ও সাভারে পৃথক কর্মসূচিতে তাঁরা এসব মন্তব্য করেন।

গতকাল সকালে সাভার উপজেলার আশুলিয়ার নবীনগরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সংস্কারকাজ পরিদর্শনের সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ সময় ঢাকা-১৯ আসনের সংসদ সদস্য ডা. মো. এনামুর রহমান এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের সঙ্গে সম্প্রতি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ হ্যাকড করে টাকা চুরির বিষয়েও কথা বলেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর আতিউর রহমান একজন ভালো মানুষ। এ ঘটনার সঙ্গে তাঁর (আতিউর রহমান) কোনো সংশ্লিষ্টতা থাকতে পারে না। বিএনপির কাউন্সিল প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ঘুরে দাঁড়ানোর ডাক দিয়ে বিএনপি যে কাউন্সিল আহ্বান করেছে তাতে ঘুরে দাঁড়ানোর কোনো আভাস পাওয়া যাচ্ছে না। বিএনপির কাউন্সিলে দলটির কোনো পরিবর্তন ঘটবে না। যেহেতু নেতৃত্বে কোনো পরিবর্তন হচ্ছে না, তাই ঘুরে দাঁড়ানোর কোনো সম্ভাবনাও নেই।

অন্যদিকে, গতকাল দুপুরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপপরিষদ আয়োজিত সেমিনারে এমন বক্তব্য দেন দলের প্রচার সম্পাদক ও সাবেক মন্ত্রী হাছান মাহমুদ। ‘সাম্প্রদায়িকতা, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস মোকাবিলায় জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ’ শীর্ষক সেমিনারটিতে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম।

অনুষ্ঠানে হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরিতে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ব্যাংকের দায় আছে। তাঁর মতে, চেকের মাধ্যমে বড় অঙ্কের টাকা তুলতে গেলে তা ফোনের মাধ্যমে যাচাই করা ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। অথচ আমেরিকার ফেডারেল ব্যাংক টাকা ছাড় করার জন্য একটি ই-মেইল পাঠালেও উত্তর দেওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করেনি। তাই এতে ফেডারেল ব্যাংক দায়দায়িত্ব এড়াতে পারে না। তাই এটি ষড়যন্ত্র কি না তা খতিয়ে দেখতে সরকারকে তিনি অনুরোধ করেন।


মন্তব্য