kalerkantho


প্রথম ধাপের প্রচার বন্ধ হচ্ছে কাল মধ্যরাত থেকে

বিশেষ প্রতিনিধি   

১৯ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



প্রথম ধাপের প্রচার বন্ধ হচ্ছে কাল মধ্যরাত থেকে

২২ মার্চ প্রথম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। এ উপলক্ষে চলছে প্রস্তুতি। গতকাল বিজি প্রেস থেকে ব্যালট পেপার ও সরঞ্জামাদি পাঠানো শুরু হয়েছে। ছবি : কালের কণ্ঠ

প্রথম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রকাশ্যে প্রচার বন্ধ হচ্ছে আগামীকাল রবিবার মধ্যরাত থেকে। নির্বাচনী আইন অনুসারে ভোটগ্রহণ শুরুর আগের ৩২ ঘণ্টা, ভোটগ্রহণের দিন সকাল ৮টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত এবং এর পরের ৪৮ ঘণ্টা নির্বাচনী এলাকায় কোনো জনসভা আহ্বান, অনুষ্ঠান ও তাতে যোগ দেওয়া যাবে না। এ সময় কোনো মিছিল, শোভাযাত্রা করা বা তাতে যোগ দেওয়াও শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এ অপরাধে ছয় মাস থেকে তিন বছর পর্যন্ত করাদণ্ড হতে পারে।

রবিবার থেকেই নির্বাচনসংক্রান্ত অপরাধের তাত্ক্ষণিক বিচারের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রতিটি উপজেলায় একজন করে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। সংশ্লিষ্ট জেলার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটদের এ দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের আইন শাখার উপসচিব মো. মহাসনুিল হক স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপন গত ১৬ মার্চ জারি করা হয়। রবিবার থেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় মাঠে নামছেন বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যরাও।

এ ছাড়া আজ শনিবার সকাল থেকে মঙ্গলবার মধ্যরাত পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকাগুলোতে মোটরসাইকেল চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকছে। আর বেবিট্যাক্সি/অটোরিকশা/ইজিবাইক, ট্যাক্সিক্যাব, মাইক্রোবাস, জিপ, ্পিকআপ, কার, বাস, ট্রাক ও টেম্পো চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা বলবৎ হবে সোমবার মধ্যরাত থেকে মঙ্গলবার মধ্যরাত পর্যন্ত।

২২ মার্চ প্রথম ধাপে ৩৬ জেলার ১০১টি উপজেলার ৭২১টি ইউপির ভোটগ্রহণ হতে যাচ্ছে।

নির্বাচন কমিশনের তথ্যানুসারে, প্রথম ধাপের তালিকাভুক্ত ইউপিগুলোর মধ্যে টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর উপজেলার ১১টি ইউপির নির্বাচন হবে আগামী ২৩ মার্চ বুধবার। আর কক্সবাজারের হোয়াইকং ও হ্নীলা ইউপির নির্বাচন হবে ২৭ মার্চ। এ ১৩টি ইউপিতে নির্বাচনী প্রচার, যান চলাচল ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ হবে ভোটগ্রহণের তারিখের সঙ্গে সমন্বয় করে।

নির্বাচন কমিশন প্রথম ধাপের জন্য ৭৫২টি ইউপির তফসিল ঘোষণা করলেও পরে আইনগত জটিলতার কারণে কয়েকটি ইউপির নির্বাচন স্থগিত করা হয়। ২২ মার্চের ভোটে তিন হাজার ৩৪ জন চেয়ারম্যান, সাধারণ সদস্য পদে ২৫ হাজার ৮৪৭ জন ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের নারী সদস্য পদে সাত হাজার ৫৭৫ জন প্রার্থী রয়েছেন। ইসির ঘোষণা অনুযায়ী, দ্বিতীয় ধাপে ৩১ মার্চ, তৃতীয় ধাপে ২৩ এপ্রিল, চতুর্থ ধাপে ৭ মে, পঞ্চম ধাপে ২৮ মে ও ষষ্ঠ ধাপে ৪ জুন ভোট হওয়ার কথা রয়েছে।

নির্বাচনী সামগ্রী পাঠানো হয়েছে : ইউপি নির্বাচনের জন্য প্রায় সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। প্রথম ধাপের ৭৩৪টি ইউপি নির্বাচনের জন্য ৩৬ জেলায় ব্যালট পেপারসহ অন্যান্য সামগ্রী পাঠিয়েছে কমিশন। রাজধানীর পাঁচটি প্রেস থেকে গতকাল ব্যালট পেপারসহ নির্বাচনী সামগ্রী জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বা তাঁদের প্রতিনিধিদের কাছে বিতরণ করা হয়। ভোটের আগের দিন জেলা পর্যায় থেকে কেন্দ্রে কেন্দ্রে ব্যালট পৌঁছে দেওয়া হবে।


মন্তব্য