kalerkantho


ফিটনেস

অনুশীলনের সঙ্গে প্রয়োজন খাবারও

কঠোর অনুশীলনেই পাওয়া যায় কাঙ্ক্ষিত শরীর। তবে শুধু অনুশীলনই নয়, আকর্ষণীয় শরীর গঠনের জন্য অনুশীলনের পাশাপাশি যেমন প্রয়োজন উপযুক্ত খাদ্য তেমনি বিশ্রামেরও। মাংসপেশি গঠনের জন্য সহজ কিছু নিয়ম, সেই সঙ্গে খাদ্যাভ্যাস এবং বিশ্রাম নিয়ে আলোচনা করা হলো এবারের সংখ্যায়

১৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



অনুশীলনের সঙ্গে প্রয়োজন খাবারও

স্ট্রেচ : যেকোনো ধরনের স্ট্রেচিং করতে হবে। তবে স্ট্রেচ করার সময় একটা ফোম ব্যবহার করা উচিত।

এতে স্ট্রেচিংয়ের সময়টা যেমন স্বস্তিতে কাটবে, তেমনি ছোটখাটো ইনজুরি থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে।

পুরো শরীরকে কাজে লাগানো : সবচেয়ে ভালো ফল পেতে একই ব্যায়ামে শরীরের সব অংশকে কাজে লাগাতে হবে। অথবা একই অনুশীলনে শরীরের ওপরের অংশ এবং অন্য অনুশীলনে নিচের অংশের অংশগ্রহণ হলে ভালো হয়।

ফুয়েল আপ : কোন খাবারে কত ক্যালরি আছে শুরুতেই সে সম্পর্কে ধারণা নিতে হবে। কেননা শরীর গঠনের জন্য খাবারটা সবচেয়ে বেশি জরুরি। আর জরুরি ক্যালরিসমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ। খাবারের ক্যালরি সম্পর্কে ধারণা নিয়ে আগের চেয়ে প্রতিদিন খাবারে যেন আরো ৫০০ ক্যালরি যোগ হয় সে দিকে মনোযোগী হতে হবে।

সীমিত কার্ডিও : ট্রেডমিলে সপ্তাহে দুই দিন জগিং করা যেতে পারে। তবে প্রতিটি সেশন আধাঘণ্টা করে হলে ভালো।

আবার মাঝে মাঝে মাঠেও দৌড়ানো যেতে পারে। প্রতি এক মিনিট দৌড়ের পর দুই মিনিট জগিং। এভাবে ৩০ মিনিট করে প্রতি সপ্তাহে তিনবার করতে হবে।

ঘুম : সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুম সবচেয়ে ভালো। সপ্তাহে এক বা দুই দিন হয়তো তার ব্যতিক্রম হতে পারে। এমনটা হলেও দ্রুত তা সমাধানের চেষ্টা করতে হবে।

পরিবর্তন : মাঝে মাঝে অনুশীলনে পরিবর্তন আনতে হবে। প্রতি চার থেকে ছয় সপ্তাহ অন্তর পরিবর্তন আনলে ভালো হয়। এটা যেমন অনুশীলনে হতে পারে, তেমনি হতে পারে অনুশীলনের পরিমাণে, এমনকি বিশ্রামের সময়েও।


মন্তব্য