kalerkantho


পুরোহিত হত্যাকাণ্ড

পরিকল্পনা ও ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার রমজানের

পঞ্চগড় প্রতিনিধি   

১৫ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে পুরোহিত যজ্ঞেশ্বর রায় হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনা ও ঘটনায় নিজের সরাসরি সম্পৃক্ত থাকার কথা স্বীকার করেছে জেএমবি সদস্য রমজান আলী (২২)। গতকাল সোমবার বিকেলে পঞ্চগড়ের  জ্যেষ্ঠ বিচার বিভাগীয় হাকিমের কাছে ১৬৪ ধারায় দেওয়া জবানবন্দিতে তিনি দায় স্বীকার করেন।

পরে আদালতের নির্দেশে তাঁকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গত ২১ ফেব্রুয়ারি দেবীগঞ্জ উপজেলা সদরে অবস্থিত সন্ত গৌড়ীয় মঠে গিয়ে দুর্বৃত্তরা পুরোহিত যজ্ঞেশ্বর রায়কে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করে। এ সময় দুর্বৃত্তদের গুলিতে ভক্ত গোপাল চন্দ্র আহত হন। পরে অস্ত্রোপচার করে গোপালের এক হাতের কবজির কিছুটা ওপর পর্যন্ত কেটে ফেলা হয়। এ ঘটনায় হত্যা এবং অস্ত্র ও বিস্ফোরক আইনে আলাদা দুটি মামলা হয়।

দেবীগঞ্জ থানার ওসি সুকুমার মোহন্ত সাংবাদিকদের জানান, দুপুর ১টায় রমজানকে জ্যেষ্ঠ বিচার বিভাগীয় হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। আদালতের বিচারক মার্জিয়া খাতুন তাকে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে চিন্তাভাবনা করার জন্য সময় দেন। পরে সে সম্মত হলে বিকেল ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত বিচারকের খাসকামরায় জবানবন্দি দেয়।

ওসি জানান, পুরোহিত হত্যার ঘটনায় রমজান অন্যতম আসামি।

পরিকল্পনাসহ পুরো ঘটনার সঙ্গে সে নিজের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। তবে নিজে পুরোহিতকে গলা কেটে হত্যা করার কথা জবানবন্দিতে বলেছে কি না—এমন প্রশ্নে পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘এটা আমি বলতে পারব না। ’


মন্তব্য