kalerkantho


পুলিশের নেওয়া নাগরিক তথ্যে তৈরি হবে কেন্দ্রীয় ডাটাবেইস

ওমর ফারুক   

১৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



রাজধানীতে বসবাসরত নাগরিকদের তথ্য সংগ্রহে পুলিশ পেয়েছে ব্যাপক সাড়া। নাগরিকদের পূর্ণাঙ্গ তথ্য নিয়ে পুলিশ একটি কেন্দ্রীয় ডাটাবেইস তৈরি করবে বলে জানা গেছে। তাতে রাজধানীর বাড়ি, ভাড়াটিয়াসহ গুরুত্বপূর্ণ পরিসংখ্যান সহজেই পাওয়া যাবে। এদিকে বাড়ির মালিক ও ভাড়াটিয়াদের তথ্য চাওয়ায় পুলিশের এখতিয়ার নিয়ে হাইকোর্টে দাখিল করা রিট আবেদন গতকাল খারিজ হয়ে গেছে। এ অবস্থায় পুলিশের তথ্য সংগ্রহে কোনো আইনি বাধা থাকল না। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আগামীকাল শেষ হবে এ তথ্য সংগ্রহ।

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানায় গতকাল পর্যন্ত জমা হয়েছে প্রায় ৩০ হাজার ভাড়াটিয়া ও বাড়িওয়ালার তথ্য ফরম। এখানকার বাসিন্দা রয়েছেন আনুমানিক ৫০ হাজার। বাকিদের তথ্য আগামীকালের মধ্যে পেয়ে যাবেন বলে আশাবাদী সংশ্লিষ্টরা।

যাত্রাবাড়ী থানার ওসি মো. আনিসুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘তথ্য ফরম বিতরণ ও সংগ্রহের জন্য সাতটি টিম করে দেওয়া হয়েছে। পাড়া-মহল্লায় বৈঠক করা হয়েছে। এ জন্য নাগরিকদের মাঝে সচেতনতা তৈরি হয়েছে এবং আমরা ভালো সাড়া পেয়েছি। ’

শ্যামপুর থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘শ্যামপুর থানাধীন ৩৫ হাজারের মতো বাড়িওয়ালা ও ভাড়াটিয়া রয়েছেন। ইতিমধ্যে ২৫ হাজারের মতো তথ্য ফরম পাওয়া গেছে। আশা করছি বাকিটা দ্রুতই পাওয়া যাবে। ’

ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার উপপুলিশ কমিশনার (ডিসি) মারুফ হোসেন সরদার বলেন, ‘ভাড়াটিয়া ও বাড়িওয়ালাদের কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। নগরবাসীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি পুলিশের কাজে সহযোগিতা করার জন্য। এসব তথ্য নিয়ে কেন্দ্রীয়ভাবে ডিএমপি একটি তথ্য ভাণ্ডার তৈরি করবে। ’

পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, নাগরিক তথ্য দিয়ে যে ডাটাবেইস তৈরি হবে, তাতে উপকৃত হবেন সকলে। তথ্য বিশ্লেষণে জানা যাবে ঢাকায় বাড়ির সংখ্যা, নাগরিক সংখ্যাসহ গুরুত্বপূর্ণ নানা তথ্য। ঢাকা মহানগরীর অধিকাংশ থানায়ই তথ্য সংগ্রহ এখন শেষ পর‌্যায়ে। ৪৯টি থানার পুলিশ বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য ফরম দেওয়া ও জমা নেওয়ার কাজ করে। ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া সংবাদ সম্মেলন করে ১৫ মার্চ তথ্য ফরম জমা দেওয়ার শেষ দিন ধার্য করে দেন। এরপর তথ্য ফরম সংগ্রহে গতি বাড়ে। এরই মাঝে তথ্য সংগ্রহে পুলিশের এখতিয়ার নিয়ে হাইকোর্টে রিট দাখিল হলে তথ্য সংগ্রহ কিছুটা ভাটা পড়েছিল। অনেকেই সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছিলেন।

তথ্য গোপন রাখা হবে : গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার ও কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান মো. মনিরুল ইসলাম জানান, নগরবাসীর সংগৃহীত তথ্য গোপন রাখা হবে। নগরবাসীর সামগ্রিক নিরাপত্তার জন্যই আমরা এই কাজ করছি। জঙ্গি সংগঠনের কার্যকলাপে বাধ্য হয়েই এ বিষয়টি ভাবতে হচ্ছে। ‘ই-তথ্য’ শতভাগ গোপন রাখা হবে। পুলিশ তার নিজস্ব অর্থায়নে এই তথ্যগুলোর ডাটাবেইস করবে।

রিট খারিজ : ঢাকার বাড়িওয়ালা ও ভাড়াটিয়াদের তথ্য চেয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) আইনগত এখতিয়ার চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা রিট খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। গতকাল বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ রিটটি খারিজের আদেশ দেন।


মন্তব্য