kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


‘ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ল’ মেয়েটি, মারা গেল হাসপাতালে

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১২ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



নির্মাণাধীন একটি পাঁচতলা ভবনের ছাদে উঠে এক কিশোরী নিচের দিকে তাকিয়ে ‘লাফ দিচ্ছি, লাফ দিচ্ছি’ বলে চিত্কার করছিল। নিচে থাকা লোকজন তাকে নিষেধ করছিল লাফ না দিতে।

বলছিল নিচে চলে আসার জন্য। কিন্তু কারো কথায় কান না দিয়ে লাফিয়ে পড়ে সে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

গত বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ১১টার দিকে চট্টগ্রাম নগরের হাজারীগলি এলাকায় এভাবেই ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে এই কিশোরী মারা যায় বলে দাবি পুলিশ কর্মকর্তা ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের।

পুলিশ বলছে, তারা ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে। আর ওয়ার্ড কাউন্সিলর বলেছেন, ঘটনার পর ওই ভবন তল্লাশি করে অন্য কাউকে পাওয়া যায়নি।

মৃত কিশোরীর নাম বুলবুলি দাশ (১২)। সে ওই এলাকার বাসিন্দা সুবিমল দাশ ও পান্না ধর দম্পতির বাসায় ছয় বছর ধরে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করে আসছিল। এই দম্পতির পাঁচতলা ভবনের পাশের একটি নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ থেকে সে লাফ দেয়।

জানা যায়, লাফ দিয়ে রাস্তায় পড়ার পর গুরুতর অবস্থায় বুলবুলিকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই রাত সোয়া ২টার দিকে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে সে। গতকাল শুক্রবার চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ মর্গে ময়নাতদন্তের পর বুলবুলির মরদেহ গৃহকর্তা সুবিমল দাশের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ।

কোতোয়ালি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সিরাজুল মোস্তফা গতকাল কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বৃহস্পতিবার রাতে সুবিমলের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে পাশের সিনেমা প্যালেস এলাকায় একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যায় বুলবুলি। সে আগেভাগেই বাসায় ফেরার জন্য বেরিয়ে আসে বলে সুবিমলের পরিবারের লোকজন জানিয়েছে। আমরা তদন্ত করছি কী কারণে বুলবুলি ছাদ থেকে লাফ দিয়েছে। ’

এসআই আরো বলেন, ‘পোস্টমর্টেম রিপোর্ট পাওয়ার পর মামলা হবে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি, কারো সঙ্গে অভিমান করে এ ঘটনা ঘটিয়েছে সে। ’ তবে ওই ঘটনায় গতকাল পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি।


মন্তব্য