জালিয়াতি ধরা পড়ায় এক আসামির জামিন-334188 | খবর | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

বুধবার । ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৩ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৫ জিলহজ ১৪৩৭


জয়পুরহাটের আরাফাত হত্যা মামলা

জালিয়াতি ধরা পড়ায় এক আসামির জামিন বাতিল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



জয়পুরহাটের আরাফাত হোসেন হত্যা মামলায় জালিয়াতি করে জামিন নেওয়ায় সংশ্লিষ্ট আসামি আজাদ হোসেনের জামিন বাতিল করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত আইনজীবী, আসামিসহ সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে মামলা করতে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহীম ও বিচারপতি আমির হোসেনের হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল বুধবার এ আদেশ দেন।

২০১৪ সালের ৪ আগস্ট মো. আরাফাত হোসেন নিহত হন। এ ঘটনায় নিহতের মা জোবেদা খাতুন জয়পুরহাট থানায় মামলা করেন। মামলায় আবদুর রউফ ওরফে আজাদ হোসেনসহ ১০ জনকে আসামি করেন তিনি। গত বছরের ২৭ এপ্রিল আজাদ হোসেনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপর ওই বছরের ৩১ মে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দেয় পুলিশ। মামলায় হাইকোর্টে জামিন আবেদন করে আজাদ। চলতি বছরের ২৯ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট তাকে ছয় মাসের জামিন দেন। জামিন আবেদনের সঙ্গে মামলার যে এজাহার ও অভিযোগপত্র দাখিল করা হয় তাতে আজাদকে মামলার ৩ নম্বর আসামি দেখানো হয়। এ ছাড়া তার বিরুদ্ধে অভিযোগে বলা হয়, আজাদ হোসেন খুন করার উদ্দেশ্যে ছোরা দিয়ে আরাফাতের বাম ঊরুতে আঘাত করে।

তবে সংশ্লিষ্ট আদালতের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল শেখ এ কে এম মনিরুজ্জামান কবির জামিন জালিয়াতির বিষয়টি জানার পর আদালতকে অবহিত করেন। তিনি জানান, মূল এজাহারে রয়েছে, আজাদ ২ নম্বর আসামি। সে গলায় কোপ মারে। এরপর আদালত গত ২৯ ফেব্রুয়ারি দেওয়া আদেশ প্রত্যাহার করেন। একই সঙ্গে পুনরায় শুনানির জন্য কার্যতালিকাভুক্ত করা হয়। কিন্তু আসামিপক্ষের আইনজীবী প্রদীপ কুমার সরকার আদালতে হাজির হননি। এ অবস্থায় গতকাল আদালত তার জামিন বাতিল করেন। আসামির আইনজীবী, আসামি, জামিন আবেদনের হলফনামাকারী এবং নিম্ন আদালত থেকে সার্টিফায়েড কপি জারিকারীর বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশ দেন।

মন্তব্য