kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


‘অমল বাহিনীর’ প্রধানসহ তিনজন ভারতে গ্রেপ্তার

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

১০ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



দক্ষিণাঞ্চলের ‘চমরপন্থী অমল বাহিনীর’ প্রধান অমল কৃষ্ণ মণ্ডল দুই সহযোগীসহ গত মঙ্গলবার রাতে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগরে গ্রেপ্তার হয়েছে। গতকাল বুধবার রাজবাড়ীর পাংশা থানা পুলিশ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

গ্রেপ্তার হওয়া অন্য দুজন হলো কথিত ওই বাহিনীর দ্বিতীয় প্রধান সুদান মণ্ডল ও তাদের সহযোগী আব্দুল ওহাব মণ্ডল।

গতকাল সন্ধ্যায় পাংশা থানার ওসি আবু সামা মো. ইকবাল হায়াৎ সাংবাদিকদের জানান, সাম্প্রতিক সময়ে অমল ও তার সহযোগীদের অবস্থান নদীয়ার কৃষ্ণনগর থানা এলাকায় বলে তাঁরা নিশ্চিত হন। বিষয়টি কৃষ্ণনগর থানাকে জানানো হয়। ওই তথ্যের ভিত্তিতে কৃষ্ণনগর থানার পুলিশ মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে অমল কৃষ্ণ মণ্ডলকে (৪৪) গ্রেপ্তার করে।

অমল জেলার পাংশা উপজেলার কশবামাজাইল ইউনিয়নের সুবর্ণখোলা গ্রামের ভোলানাথ মণ্ডলের ছেলে। কয়েক বছর ধরে পাংশায় পুলিশের তত্পরতা বৃদ্ধি এবং কথিত বন্দুকযুদ্ধে বেশ কয়েকজন ‘চরমপন্থী’ নিহত হওয়ার পর সে ভারতে পালিয়ে যায়। তবে সেখানে বসেই সে এ অঞ্চলে থাকা তার কথিত বাহিনী নিয়ন্ত্রণ করে আসছিল। তার নামে শুধু পাংশা থানাতেই দুটি হত্যা, একটি অস্ত্র ও একটি চাঁদাবাজি মামলা রয়েছে। দেশের অন্যান্য থানায়ও মামলা রয়েছে।

ওসি আরো জানান, অমলকে গ্রেপ্তার করার আগে গত ৫ মার্চ কৃষ্ণনগর থানার পুলিশ তার প্রধান সহযোগী পাংশার শরিষা ইউনিয়নের পিরালীপাড়া গ্রামের নিতাই মণ্ডলের ছেলে সুদান মণ্ডল ওরফে সুদাং কুমার মণ্ডল (৩৫) এবং তাদের আরেক সহযোগী একই উপজেলার পাট্টা ইউনিয়নের নিভাসরুপাড়া গ্রামের ইসলাম মণ্ডলের ছেলে আব্দুল ওহাব মণ্ডলকে (৩০) গ্রেপ্তার করে। তারা বর্তমানে পাঁচ দিনের রিমান্ডে রয়েছে।

সুদান মণ্ডলের নামে একটি হত্যা, দুটি বোমা হামলা এবং ওহাবের বিরুদ্ধে দুটি অস্ত্র ও একটি ডাকাতি মামলা রয়েছে বলে পাংশা থানার ওসি জানান।


মন্তব্য