kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


নারী দিবসে বিশেষ আয়োজন মোনালিসা উইমেন্স ক্লাবের

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

৯ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে বসুন্ধরা গ্রুপের অধীন পরিচালিত ‘মোনালিসা উইমেন্স ক্লাব’ বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের ছাত্রীদের নিয়ে পিরিয়ডকালীন হাইজেনিক সচেতনতা বিষয়ক এক বিশেষ সেমিনার ও সুস্বাস্থ্য রক্ষায় ফ্রি স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণ করেছে। গতকাল রাজধানীর গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুননেসা মুজিব হলে পৃথক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

সকাল সাড়ে ১১টায় গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের অডিটরিয়ামে ‘বেটার ম্যানেজমেন্ট অব হেলথ অ্যান্ড হাইজেনিক ডিউরিং মেনস্ট্রুয়েশন লিডস টু বেটার লাইফ স্টাইল’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন কলেজের অধ্যক্ষ শামসুন নাহার, শিক্ষিকা সানজিদা হক, বসুন্ধরা পেপার মিলসের হেড অব ব্র্যান্ড সেলিম উল্লাহ (ব্র্যান্ড বিভাগ, পেপার শাখা) ও হাইজেনিক পণ্যের ম্যানেজার (ব্র্যান্ড) রবিউল আলম প্রমুখ।

পরবর্তী সময় পিরিয়ডকালীন বিভিন্ন সমস্যা বিষয়ে উত্তর দেন বারডেম হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার ডা. নাদিয়া সিদ্দিকী। সেমিনারে বক্তারা বলেন, সামনে এগিয়ে যেতে নারীদের বড় প্রতিবন্ধকতা পিরিয়ডকালীন সমস্যা।   নারীর সুস্বাস্থ্যের জন্য খুবই স্পর্শকাতর। কাজেই খুব সতর্কতা ও স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে মোকাবিলা করতে হবে।

সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বঙ্গমাতা ফজিলাতুননেসা মুজিব হলের ২০১০-২০১১ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রীদের র‌্যাগ ডে অনুষ্ঠানের স্পন্সর করে মোনালিসা উইমেন্স ক্লাব। ক্লাবটি ‘একান্ত অনুভূতি : বালিকা থেকে নারী হয়ে ওঠা’ শীর্ষক রচনা প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। রচনা প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকারীকে পাঁচ হাজার, দ্বিতীয় স্থান অধিকারীকে তিন হাজার ও তৃতীয় স্থান অধিকারীকে ১৫ শ টাকা এবং ক্রেস্ট ও চেক তুলে দেওয়া হয়। রচনা প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছেন প্রীতি সাহা, দ্বিতীয় কামরুন্নাহার ও তৃতীয় তাহিরা তাবাসসুম। অনুষ্ঠান শেষে প্রত্যেক ছাত্রীকে মোনালিসা স্যানিটারি ন্যাপকিনের ট্রাভেল প্যাক বিনা মূল্যে ও মোনালিসা উইমেন ক্লাবের ফ্রি সদস্য করা হয়।

অনুষ্ঠানে হল প্রাধ্যক্ষ সাবিতা রিজওয়ানা রহমানের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক ও আবাসিক শিক্ষিকা শাহান নাসরিন, হেড অব ব্র্যান্ড সেলিম উল্লাহ (পেপার শাখা) ও হাইজেনিক পণ্যের ম্যানেজার (ব্র্যান্ড) রবিউল আলম প্রমুখ।


মন্তব্য