kalerkantho


নারায়ণগঞ্জে সাত খুন

বিজয় পালের সাক্ষ্য সমাপ্ত নূর হোসেন ও তারেকের ফের সময় প্রার্থনা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুনের ঘটনায় এক মামলার বাদী বিজয় কুমার পালের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে। গতকাল সোমবার নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ এনায়েত হোসেনের আদালতে ১১ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা হয়।

আদালত আগামী ১৪ মার্চ পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য করেছেন। এর আগে ১০ মার্চ মামলার অন্য বাদী সেলিনা ইসলাম বিউটির অসমাপ্ত সাক্ষ্যগ্রহণ করা হবে।

পূর্বনির্ধারিত দিনে গতকাল সকালে মামলার ১৩ আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়। তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন নূর হোসেন, র‌্যাবের সাবেক কর্মকর্তা তারেক সাঈদ, এম এম রানা ও আরিফ। পরে আসামিদের উপস্থিতিতে মামলার বাদী বিজয় কুমার পালকে জেরা করেন আসামিপক্ষের আইনজীবীরা।

পিপি অ্যাডভোকেট ওয়াজেদ আলী খোকন জানান, গতকাল ১৩ জনের জেরা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সকালে নূর হোসেন ও তারেক সাঈদের পক্ষের আইনজীবীরা উচ্চ আদালতে মামলা ও সাক্ষ্য স্থগিতের আবেদনের কাগজপত্র দেখিয়ে সাক্ষ্যগ্রহণ ও শুনানি মুলতবির আবেদন করেন। যদিও তাঁরা তাত্ক্ষণিক উচ্চ আদালতের আদেশ দেখাতে পারেননি। পরে আদালত বিকেল ৩টায় শুনানির সময় ধার্য করেন।

এ সময়ও কোনো আদেশ দেখাতে না পারায় শুনানি মুলতবি ও স্থগিতের আবেদন খারিজ করে দিয়ে দুজনের পক্ষের আইনজীবীদের সাক্ষ্যগ্রহণের কথা বলেন আদালত। কিন্তু তাঁদের আইনজীবীরা সাক্ষ্যগ্রহণে অনীহা প্রকাশ করলে আদালত বিজয় পালের সাক্ষ্যগ্রহণ সমাপ্ত ঘোষণা করেন। একই সঙ্গে অন্য ১১ জনের সাক্ষ্যও নেওয়া হয়।

আদালত সূত্র মতে, এর আগে গত ২৯ ফেব্রুয়ারি একই আদালতে অন্য আরেকটি মামলার বাদী নিহত অ্যাডভোকেট চন্দন সরকারের জামাতা বিজয় কুমার পালের সাক্ষ্যগ্রহণের দিনও নূর হোসেন, র‌্যাবের সাবেক কর্মকর্তা এম এম রানা ও তারেক সাঈদের পক্ষে তাঁদের আইনজীবী বাদীকে জেরার জন্য আদালতে সময় প্রার্থনা করেন।

সাক্ষ্য প্রদান শেষে বিজয় কুমার পাল সাংবাদিকদের বলেন, ‘আজ নিয়ে আমি তিনবার আদালতে এসেছি। মামলাটিতে দীর্ঘসূত্রতা হচ্ছে। তবে আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই। ’


মন্তব্য