kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বখাটে আটক স্কুল গেটে থানায় গিয়েই মুক্ত

ভোলা প্রতিনিধি   

৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



পরীক্ষা কেন্দ্রের গেট থেকে ছাত্রী অপহরণচেষ্টার অভিযোগে জনতা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছিল এক বখাটেকে। কিন্তু থানায় গিয়েই মুচলেকায় মুক্তি পেয়েছে সে।

গতকাল রবিবারের এ ঘটনা নিয়ে তীব্র ক্ষোভ ও উত্তেজনা ভোলার তজুমদ্দিনে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, দালালকান্দি গ্রামের আবদুল মান্নানের ছেলে আরিফসহ কয়েকজন বখাটে ছাত্রীদের প্রায়ই উত্ত্যক্ত করে। গতকাল দুপুর সোয়া ১টায় শারীরিক শিক্ষা পরীক্ষা শেষে তজুমদ্দিন সরকারি ফজিলাতুননেসা মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে বের হচ্ছিল ছাত্রীরা। তখন আরিফের নেতৃত্বে সম্ভুপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা হলে উপস্থিতরা প্রতিরোধ গড়ে। বখাটেরা তাদের ওপর হামলা করলে আহত হয় ১২ জন। পরে ক্ষুব্ধ জনতা আরিফকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব পালনকারী পুলিশ সদস্যরা তাকে থানায় নিয়ে যান। কিন্তু কয়েক ঘণ্টা পরই আরিফকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানা যায়।

তজুমদ্দিন থানার ওসি মাসুম তালুকদার এ বিষয়ে বলেন, ‘অপহরণ নয়, ছাত্রছাত্রীদের কথাকাটাকাটি হয়েছিল। আটক ছাত্র আরিফকে মুচলেকা নিয়ে অভিভাবকদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ’

সম্ভুপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জামাল উদ্দিন বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে আটক আরিফকে থানায় নেওয়া হলো। আমরা অভিযোগ দায়ের করলাম। প্রকাশ্যে বখাটেপনা ও অপহরণচেষ্টার পরও পুলিশ কেন তাকে ছেড়ে দিয়েছে, তা বুঝতে পারছি না। ’


মন্তব্য