বোমাসহ জেএমবির তিন অস্ত্র ও আইটি-332991 | খবর | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৫ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৭ জিলহজ ১৪৩৭


বোমাসহ জেএমবির তিন অস্ত্র ও আইটি বিশেষজ্ঞ গ্রেপ্তার

র‌্যাবের দাবি, নাশকতার পরিকল্পনা করছিল তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



রাজশাহীর বাগমারা থেকে ককটেল, পেট্রলবোমাসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। র‌্যাবের ভাষ্য, এই তিনজন নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) সদস্য। তাদের মধ্যে একজন তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ। আর দুজন অস্ত্র বিশেষজ্ঞ।

গতকাল রবিবার ভোরে বাগমারা উপজেলার সগুনা পূর্বপাড়া এলাকায় র‌্যাব-৫-এর অভিযানে জেএমবির এই তিন সদস্য ধরা পড়ে। তারা আজ ৭ মার্চের কর্মসূচিতে নাশকতার পরিকল্পনা করছিল বলে র‌্যাব দাবি করেছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো তথ্যপ্রযুক্তি (আইটি) বিশেষজ্ঞ সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ওয়াপদা কলোনি এলাকার আজিজুর রহমানের ছেলে আমিনুর রহমান সুপন (৩৫), একে-৪৭ রাইফেলসহ বিভিন্ন অস্ত্র চালনায় বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত গাজীপুরের জয়দেপুর থানার শরীফপুর এলাকার সাইফুল ইসলামের ছেলে আবু সাঈদ মানিক (২৮) এবং বোমার জন্য ইলেকট্রিক ডিভাইস তৈরিতে পারদর্শী নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সানারপাড়া এলাকার হাবিবউল্যাহর ছেলে পিএম শাহেনশাহ তানিন (৫২)।

গতকাল সকালে পাঠানো র‌্যাব-৫-এর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, এই বাহিনীর রাজশাহীর হড়গ্রাম ক্যাম্পের গোয়েন্দা দল জানতে পারে যে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে জেএমবির সদস্যরা রাজশাহী অঞ্চলে সমবেত হয়ে গোপন বৈঠকের মাধ্যমে আবার সংগঠিত হচ্ছে। তারা নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড ঘটিয়ে দেশের অভ্যন্তরে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। এমন সংবাদ পাওয়ার পর মেজর মুহাম্মদ আব্দুস সালামের নেতৃত্বে একটি দল ভোর সোয়া ৫টার দিকে বাগমারা উপজেলার সগুনা পূর্বপাড়া এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় জেএমবির ওই তিন ক্যাডারকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে ১৬টি ককটেল, সাতটি পেট্রলবোমা এবং আটটি জঙ্গি কর্মকাণ্ডসংক্রান্ত বিভিন্ন কাগজ ও জিহাদ বিষয়ক বই উদ্ধার করা হয়।

মন্তব্য