kalerkantho


পুরোহিত হত্যাকাণ্ড

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আরেকজন জেলে

পঞ্চগড় প্রতিনিধি   

৬ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে পুরোহিত যজ্ঞেশ্বর রায় হত্যাকাণ্ডের মামলায় রিমান্ডে থাকা আরো এক আসামিকে গতকাল শনিবার কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাবুল হোসেন নামের এই আসামি গত ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৫ দিনের রিমান্ডে ছিলেন।

এর আগে রিমান্ড শেষে আরো দুজনকে কারাগারে পাঠানো হয়।

পুলিশ ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, পুরোহিত হত্যার ঘটনায় করা হত্যা ও অস্ত্র মামলায় বাবুল হোসেনকে প্রয়োজনীয় জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গতকাল দুপুরে পঞ্চগড়ের জ্যেষ্ঠ বিচার বিভাগীয় হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। পরবর্তী সময়ে আরো জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন হলে তাঁকে আবার রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন জানানো হবে বলে আদালতে জানানো হয়। এরপর বিচারক সফিকুল ইসলাম বাবুলকে কারাহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক আইয়ুব আলী বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে বাবুলের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। তবে কী তথ্য পাওয়া গেছে তা তদন্তের স্বার্থে বলা যাবে না।

গত ২১ ফেব্রুয়ারি পঞ্চগড় সদর উপজেলায় সন্ত গৌড়ীয় মঠের পুরোহিত যজ্ঞেশ্বর রায়কে দুর্বৃত্তরা চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করে।

এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আরো দুজনকে ধরার জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে রিমান্ডে থাকা জাহাঙ্গীর হোসেনকে গতকাল এবং জেএমবি সদস্য খলিলুর রহমানকে বৃহস্পতিবার কারাগারে পাঠানো হয়। এ ছাড়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়ার পর গত মঙ্গলবার জেএমবি সদস্য আলমগীর হোসেনকে কারাগারে পাঠানো হয়। বর্তমানে দুই মামলায় রমজান আলী ও হারেজ আলী ১৮ দিনের রিমান্ডে আছেন।


মন্তব্য