kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


এবার ব্যবসায়ীর প্রাণ কেড়ে নিল উল্টোপথের ময়লার গাড়ি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



এবার ব্যবসায়ীর প্রাণ কেড়ে নিল উল্টোপথের ময়লার গাড়ি

রাজধানীর উত্তরায় ময়লার ট্রাকের চাপায় একজন ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। তাঁর নাম আবুল কালাম আজাদ।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে হাউস বিল্ডিং এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে। ট্রাকটি তখন উল্টোপথে চলছিল।

আজাদ লিফট-সামগ্রীর ব্যবসায়ী ছিলেন। তাঁর স্বজনরা এবং পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) বর্জ্য ব্যবস্থাপনার কাজে ব্যবহার্য ট্রাকটি উল্টোপথে এসে আজাদকে (৪৭) চাপা দেয়। পরে উত্তেজিত জনতা ট্রাকটিকে আটক করে এবং চালক মোস্তফা মোস্তাকিনকে (২৫) পুলিশে সোপর্দ করে।

প্রসঙ্গত, গত ২২ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর বনানীতে পুলিশের রিকুইজিশন করা বাসের ধাক্কায় আশা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র রিয়াজ উদ্দিন তপু নিহত হন। তিনি তখন মোটরসাইকেলের ওপর ছিলেন। বাসটির চালককে গ্রেপ্তার করা হলেও তাঁকে উল্টোপথে চলতে নির্দেশ দেওয়া পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

উত্তরা-পূর্ব থানার ওসি আবু বকর মিয়া জানান, গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে সিটি করপোরেশনের ময়লাবাহী একটি ট্রাক উল্টোপথে আবদুল্লাহপুরের দিকে যাচ্ছিল। হাউস বিল্ডিং এলাকায় ফুট ওভারব্রিজের নিচে সেটি পথচারী আবুল কালাম আজাদকে চাপা দেয়। তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। ট্রাকসহ চালককে আটক করা হয়েছে। তার ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়া যায়নি। তিনি জানান, মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

ডিএনসিসির প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন (নৌ.) বিপন কুমার সাহা বলেন, ‘এটি ব্যক্তি মালিকানাধীন ট্রাক। ভাড়ায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনার কাজ করে। এটির চালক, জ্বালানি—কোনো বিষয়ই আমাদের নিয়ন্ত্রণে নয়। ’

আজাদের ভগ্নিপতি আকতার হোসেন জানান, উত্তরার রাজলক্ষ্মী মার্কেটে তাঁর একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান আছে। তিনি বিভিন্ন ভবনে লিফট স্থাপন এবং লিফটের সরঞ্জাম সরবরাহ করতেন। গতকাল দুপুরে তিনি হাউস বিল্ডিং এলাকায় ব্যাংক থেকে টাকা তুলতে যান। ফেরার সময় উল্টোপথে চলা ট্রাকটি তাঁকে চাপা দেয়। তিনি বলেন, ‘পথচারীরা ঘটনাটি দেখেছে। তারাই ট্রাকটিকে আটক করে এবং চালককে পুলিশে দেয়। পুলিশও দেখেছে। আমরা লাশ দাফনের পর আইনগত ব্যবস্থা নেব। ’

আবুল কালাম আজাদের বাড়ি ভোলার চরফ্যাশন পৌরসভায়। তাঁর বাবার নাম মমতাজ উদ্দিন মাস্টার। তিন ভাই ও তিন বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন সবার বড়। রাজধানীর আজমপুরের মোসাইরে স্ত্রী শিলা বেগম ও মেয়ে মিমকে নিয়ে থাকতেন তিনি। মিম চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী।


মন্তব্য