গাজীপুরে দুই ট্রেনের ধাক্কা শিশু-331193 | খবর | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১২ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৪ জিলহজ ১৪৩৭


গাজীপুরে দুই ট্রেনের ধাক্কা শিশু নিহত, আহত ৫

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

২ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



গাজীপুরে চলন্ত ট্রেনের বগিতে পেছন দিক থেকে অন্য একটি ট্রেনের ইঞ্জিনের ধাক্কায় এক শিশু নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে পাঁচজন। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টা ২০ মিনিটের দিকে জয়দেবপুর জংশনের দক্ষিণে  ঢাকাগামী দ্রুতযান এক্সপ্রেস ও তুরাগ এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনের মধ্যে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মামুনুর রশিদ (১২) ময়মনসিংহের ফুলপুর এলাকার আবুল কাশেমের ছেলে। সে পরিবারের সঙ্গে জয়দেবপুর জংশন স্টেশনসংলগ্ন পূর্বচান্দনা এলাকার আবদুল বারেক হাজির বাড়িতে ভাড়া থাকত।

আহতরা হলো আলী আজম (৫২), আতাউর রহমান (৩০), সুমন মিয়া (২৫), সজীব (১৩) ও রিয়েল (১৪)। তারা সবাই দ্রুতযান এক্সপ্রেসের যাত্রী ছিল। তাদের মধ্যে সজীবকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এবং রিয়েলকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

জয়দেবপুর জংশন ফাঁড়ির এএসআই দানন মিয়া ও স্থানীয় লোকজন জানায়, ঢাকা-জয়দেবপুর রেলরুটে চলাচলকারী তুরাগ ট্রেনটি রাত ৭টার দিকে ঢাকা থেকে এসে জয়দেবপুর জংশন স্টেশনে দাঁড়িয়েছিল। কিছুক্ষণ পর দিনাজপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনটি জয়দেবপুর জংশনে যাত্রা বিরতি দিয়ে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাচ্ছিল। তুরাগ ট্রেনটি ঢাকার দিকে যাওয়ার জন্যে ইঞ্জিন ঘুরিয়ে যে লাইন দিয়ে দ্রুতযান যাচ্ছিল সেই লাইনে প্রবেশ করে পেছন পেছন যাচ্ছিল। দ্রুতযান ট্রেনটি ধীরগতিতে জংশন অতিক্রম করার সময় রাত ৭টা ২০ মিনিটের দিকে তুরাগের ইঞ্জিন পেছন থেকে দ্রুতযান এক্সপ্রেসের বগিতে ধাক্কা দেয়। এতে ওই ট্রেনের পেছনের দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়। সংঘর্ষে তুরাগের ইঞ্জিনের হোসপাইপে বসে থাকা শিশু মামুনুর রশিদ ঘটনাস্থলেই মারা যায়। 

স্টেশন মাস্টার শহিদুল ইসলাম বলেন, চালক সিগন্যাল অমান্য করে ইঞ্জিন নিয়ে দ্রুতযানের পেছন পেছন দ্রুত যেতে থাকলে দেখতে পেয়ে মাইকে চালককে নিষেধ করেন। ইঞ্জিনে থাকা পয়েন্টম্যানও তাকে নিষেধ করেন। কিন্তু তুরাগের চালক নিষেধ অমান্য করেই দ্রুত গতিতে গিয়ে ওই ট্রেনের বগিতে ধাক্কা দিলে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর দ্রুতযানের যাত্রীদের পরে জামালপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী তিস্তা এক্সপ্রেস ট্রেনে তুলে দিয়ে ঢাকায় পাঠানো হয়। দুর্ঘটনার কারণে ঢাকা-ময়মনসিংহ ও রাজশাহী রুটে এক ঘণ্টা ট্রেন চলাচল বিঘ্নিত হয়।

মন্তব্য