কালিয়াকৈরে পোশাক শ্রমিকদের অবরোধ-331120 | খবর | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০১৬। ১৬ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৮ জিলহজ ১৪৩৭


মামলা প্রত্যাহার ও ছুটির টাকা দাবি

কালিয়াকৈরে পোশাক শ্রমিকদের অবরোধ

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

২ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



গাজীপুরের কালিয়াকৈরের চন্দ্রা এলাকার একটি কারখানার শ্রমিকরা গতকাল মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনের মতো কাজ বন্ধ রেখে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখিয়েছে। শ্রমিকদের বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও বার্ষিক ছুটির টাকা চেয়ে তারা ওই কর্মসূচি পালন করে।

জানা যায়, ওই এলাকার মাহমুদ জিন্স নামের পোশাক কারখানার শ্রমিকরা কয়েক দিন ধরে কর্তৃপক্ষের কাছে বার্ষিক ছুটির টাকা দাবি করে আসছে। কিন্তু কারখানা কর্তৃপক্ষ তাতে সাড়া দিচ্ছিল না। পরে শ্রমিকরা জোরালো দাবি তুললে ২০১৪ সালের বার্ষিক ছুটির টাকা দিয়ে গত বছরের টাকা গত সোমবার দেওয়ার তারিখ দেওয়া হয়। কিন্তু উল্টো গত রবিবার শ্রমিকদের নামে কারখানা ভাঙচুর, চুরি ও কারখানার স্টাফদের মারধরের অভিযোগ এনে ২০-২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ কারখানার সুইং অপারেটর জাহাঙ্গীর ও শাহাদতকে গ্রেপ্তার করে। গত সোমবার সকালে কাজে যোগ দিতে এসে এ খবর পেয়ে শ্রমিকরা ক্ষুব্ধ হয়ে হয়ে ওঠে। একপর্যায়ে তারা কাজ বন্ধ রেখে মহাসড়ক অবরোধের চেষ্টা করে পুলিশের বাধায় ব্যর্থ হয়ে বাড়ি চলে যায়।

এদিকে গতকাল মঙ্গলবার সকালে শ্রমিকরা কারখানায় কাজে যোগ দিয়ে গ্রেপ্তারকৃত দুই শ্রমিকের মুক্তির পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও বার্ষিক ছুটির টাকা চেয়ে কাজ বন্ধ রেখে কারখানা থেকে বেরিয়ে আসে। পরে তারা কারখানার সামনে বিক্ষোভ মিছিল করে। একপর্যায়ে কারখানার প্রায় চার হাজার শ্রমিক পাশের ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায়। পরে পুলিশ এসে শ্রমিকদের বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরিয়ে দিলে তারা কারখানার মূল গেটের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে। কিন্তু দুপুরের পরও এর সমাধান না হওয়ায় শ্রমিকরা কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই বাড়ি চলে যায়। মাহমুদ জিন্স লিমিটেড কারখানার প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. আখতারুজ্জামান তালুকদার বলেন, শ্রমিকদের চলমান আন্দোলন সমাধানে কারখানার ভেতরে বৈঠক চলছে।

গাজীপুর শিল্প পুলিশ-২-এর ওসি মো. আব্দুল খালেক বলেন, দ্বিতীয় দিনের মতো শ্রমিকরা মঙ্গলবার কাজ বন্ধ রেখে বিক্ষোভ মিছিলসহ মহাসড়ক অবরোধে করে। পরে তাদের বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। বর্তমানে কারখানার সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়েছে।

‘ধানসিড়ি’ সভাপতিকে

আসামি করে মামলা

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে গ্রাহকদের প্রায় ১০ কোটি টাকা নিয়ে পালানো ধানসিড়ি বহুমুখী সমবায় সমিতির সভাপতির বিরুদ্ধে কালিয়াকৈর থানায় মামলা করা হয়েছে। গতকাল মামলা দুটি করা হয়েছে। সূত্রমতে, গ্রাহকদের পক্ষে জহিরুল ইসলাম বাদী হয়ে সমিতির সভাপতি এম এ আজিজকে আসামি করে কালিয়াকৈর থানায় মামলা করেছেন। তা ছাড়া কালিয়াকৈর উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা আবু মঈন রকিব আহম্মেদ বাদী হয়ে এম এ আজিজের বিরুদ্ধে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত এম এ আজিজ পলাতক থাকায় গ্রাহকের মধ্যে ক্ষোভ-উত্তেজনা ক্রমেই বাড়ছে। দুই দিন ধরে গ্রাহকরা এম এ আজিজের মাধবপুর গ্রামের বাড়িতে ভিড় করছে। বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে কালিয়াকৈর থানার ওসি আব্দুল মোতালেব মিয়া বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত করে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য