kalerkantho


চলেই গেলেন সেই অগ্নিদগ্ধ তহমিনা

রংপুর অফিস   

১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



স্বামীর বাড়িতে দেওয়া আগুনে দগ্ধ তহমিনা মারা গেছেন। রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চার দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করার পর যখন উন্নত চিকিত্সার জন্য তাঁকে ঢাকায় নেওয়া হচ্ছিল তখনই তিনি হেরে যান মৃত্যুর কাছে।

গতকাল সোমবার ভোরে রংপুরের মিঠাপুকুর এলাকায় অ্যাম্বুল্যান্সেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন তহমিনা। পরে তাত্ক্ষণিকভাবে তাঁকে মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানেই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে না ফেরার দেশে চলে যান এই গৃহবধূ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মারুফুল ইসলাম। ময়নাতদন্ত শেষে তহমিনার লাশ পীরগাছা উপজেলার পূর্ব চণ্ডীপুর গ্রামে বাবার বাড়িতে নেওয়া হয়। তাঁর লাশ পৌঁছলে সেখানে এক হূদয় বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়।

গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে রংপুরের পীরগাছা উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের দাদন গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ ওই গৃহবধূর স্বামী আবদুল মান্নানকে রংপুর শহর থেকে গ্রেপ্তার করেছে।


মন্তব্য