kalerkantho


নারী পাচারকারী চক্রের আট সদস্য গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে নারী পাচারকারীচক্রের আট সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। তারা হলো—রোকন, আয়শা, হামিদ, হাসান, রাব্বি, মিল্টন, সামাদ ও মামুন।

তাদের কাছ থেকে ১২টি পাসপোর্ট, ১১টি ভিসা, ৫১টি বিমানের জাল টিকিট এবং বিদেশে চাকরির ৫৩টি ভুয়া নিয়োগপত্র, একটি ভিডিও ক্যামেরা ও ১৪টি মোবাইল ফোনসেট জব্দ করা হয়। অভিযানকালে গত রবিবার রাতে ঢাকা, বেনাপোল, গাজীপুরসহ বিভিন্ন স্থান থেকে পাচারের জন্য জড়ো করা চার নারীকেও উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেলে র‌্যাব সদর দপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।  

র‌্যাবের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, গ্রেপ্তার আটজনই আন্তর্জাতিক নারী পাচারকারীচক্রের সদস্য। কাজের মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে গরিব ও অসহায় নারীদের পাচার করাই তাদের পেশা। গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর রওশন আরা নামে এক নারী র‌্যাব-১২-র কাছে তাঁর মেয়ে অপহরণের অভিযোগ করেন। তাঁর অভিযোগের সূত্রে আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়।

ফেসবুক হ্যাক করে চাঁদা দাবি : একটি ফ্যাশন হাউসের ই-মেইল ও ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে চাঁদা দাবির অভিযোগে রবিবার রাতে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের চরকালীগঞ্জ এলাকা থেকে মেহেদী হাসান নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

মেহেদী ঢাকার একটি প্রাইভেট কলেজে কম্পিউটারবিজ্ঞান বিষয়ে ডিপ্লোমা করছে।

পুলিশ  জানায়, গত ১ ফেব্রুয়ারি ডিভন ফ্যাশন হাউসের ব্যবহূত ই-মেইল ও ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে পাসওয়ার্ড বদলে দেন মেহেদী। পরে তিনি ওই প্রতিষ্ঠানে যোগাযোগ করে ১০ হাজার টাকা দাবি করেন। এ ঘটনায় গুলশান থানায় মামলা হয়।


মন্তব্য