১৬ এপ্রিল জাপার কাউন্সিল অনিশ্চিত-330683 | খবর | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৫ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৭ জিলহজ ১৪৩৭


১৬ এপ্রিল জাপার কাউন্সিল অনিশ্চিত

সহযোগিতা করবে না রওশনপন্থীরা

মোশতাক আহমদ   

১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



অভ্যন্তরীণ কোন্দলে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কাউন্সিল। আগামী ১৬ এপ্রিল দলটির ত্রিবার্ষিক কাউন্সিল হওয়ার কথা ছিল। গত দুই দিনে তিনটি জেলার কাউন্সিলে অংশ নিয়েছেন দলের প্রধান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। এখনো ২৪ থেকে ২৫টি জেলার কাউন্সিল বাকি রয়েছে। আর এটাকেই কেন্দ্রীয় কাউন্সিল পেছানোর কারণ হিসেবে বলার চেষ্টা করছেন এরশাদ। কিন্তু রওশনপন্থী নেতাদের অসহযোগিতাই কাউন্সিল না হওয়ার কারণ হিসেবে দেখছেন সংশ্লিষ্টরা। জানতে চাইলে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ কালের কণ্ঠকে বলেন, এখনো বেশ কয়েকটি জেলার কাউন্সিল বাকি। তাই কেন্দ্রীয় কাউন্সিল পেছাতে হবে।

জাতীয় পার্টির সূত্রগুলো বলছে, আর মাত্র দেড় মাস বাকি। এখনো সম্মেলনের কোনো ভেন্যুই ঠিক হয়নি। ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রকে টার্গেট করা হলেও এখনো কোনো একটিকে চূড়ান্ত করতে পারেনি জাপা। অভিযোগ রয়েছে, ভেন্যু যাতে না পাওয়া যায় সেই চেষ্টাও নাকি করছেন জাতীয় পার্টির ভেতরে থাকা সরকারপন্থীরা।

এ বিষয়ে একজন প্রেসিডিয়াম সদস্য বলেন, কাউন্সিলের তারিখ দিয়ে বসে থাকলেই তো হবে না। এর জন্য প্রস্তুতি শেষ করতে হবে। তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে রওশনপন্থী নেতাদের এরশাদের কাছে আনা যাচ্ছে না। ভাই জি এম কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান ও রুহুল আমিন হাওলাদারকে মহাসচিবের দায়িত্ব দেওয়াটা এখনো মেনে নিতে পারেনি দলের একটি অংশ। তাঁদের অনেকে আবার জেলা জাতীয় পার্টির দায়িত্বও নিয়ে আছেন। তাই সবার সহযোগিতা ছাড়া আসলে কাউন্সিল করা সম্ভব হবে না। দলটির এক প্রেসিডিয়াম সদস্য বলেন, রওশন এরশাদ জাতীয় পার্টির একজন সিনিয়র নেতা। তিনি এরশাদের নেতৃত্ব মানতে পারেন, কিন্তু যিনি রওশনের ছেলের মতো, তাঁর নেতৃত্ব তো তিনি মানতে পারেন না। তাই যত দিন রওশন এরশাদকে কো-চেয়ারম্যান না করা হবে দলের বেশির ভাগ প্রেসিডিয়াম সদস্য এরশাদের ডাকে সাড়া দেবেন না।

মন্তব্য