kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন নিহত

পটুয়াখালী প্রতিনিধি   

১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



পটুয়াখালীতে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। র‌্যাবের ভাষ্য অনুযায়ী, নিহত গোলাম মাওলা মৃধা (৩৮) পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী।

গত রবিবার দিবাগত রাতে পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের হেতালিয়া বাঁধঘাট এলাকার একটি বাগানে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

মাওলা পটুয়াখালী শহরের টাউন কালিকাপুর এলাকার মৃত মো. নূর হোসেন মৃধার ছেলে। তাঁর পরিবার বলছে, রবিবার সন্ধ্যায় তাঁকে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

র‌্যাব-৮ পটুয়াখালী ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কম্পানি কমান্ডার ফজলুর রহমান জানান, রবিবার দিবাগত রাতের শেষ প্রহরে হেতালিয়া বাঁধঘাট এলাকায় মহাসড়কের পশ্চিম পাশে জাহাঙ্গীর নামের এক ব্যক্তির রেইনট্রি বাগানে একদল সন্ত্রাসী মিলিত হয়েছে এমন খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি টহল দল সেখানে যায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। তখন র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে। দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলির একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে মাওলাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে পটুয়াখালী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা করে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

র‌্যাব কর্মকর্তা বলেন, ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, দেশীয় তৈরি বন্দুক, পিস্তলের ম্যাগাজিন দুটি, পিস্তলের গুলি তিনটি, গুলির খোসা তিনটি, বন্দুকের গুলির খোসা তিনটি, বন্দুকের গুলি দুটি ও ৬০০টি ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে।

মাওলা মৃধার ছোট ভাই মো. রানা মৃধা সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমার ভাইকে রবিবার সন্ধ্যার পরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে একটি সাদা মাইক্রোবাসে করে শহরের চৌরাস্তা এলাকা থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আজ (সোমবার) ভাইয়ের লাশ পেলাম। ’


মন্তব্য