kalerkantho


নিয়মিত বিচার বিভাগীয় ও পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেট সম্মেলনের নির্দেশ প্রধান বিচারপতির

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ জানুয়ারি, ২০১৫ ০০:০০



মহানগর ও জেলা আদালতসহ সুপ্রিম কোর্টের অধীনে সব আদালতের কার্যক্রম গতিশীল করে দ্রুত মামলা নিষ্পত্তির লক্ষ্যে বিচারকদের প্রতি চার দফা নির্দেশনা দিয়েছেন নতুন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহা। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতির নির্দেশনাসংক্রান্ত আদেশ জারি করে তা প্রতিটি আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে সুপ্রিম কোর্ট রেজিস্ট্রারের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়।

প্রথম নির্দেশনায় বলা হয়, জেলা ও দায়রা জজ, মহানগর দায়রা জজ এবং সমপর্যায়ের বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাসহ বিচার বিভাগীয় কোনো কর্মকর্তা সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রারের অনুমতি ছাড়া নিজ কর্মস্থল ত্যাগ করতে পারবেন না। দ্বিতীয় দফায় বলা হয়, প্রতিটি জেলা ও দায়রা জজ এবং মহানগর দায়রা জজরা প্রতি তিন মাস পর বিচার বিভাগীয় সম্মেলন করবেন। ওই সম্মেলনে আদালতের সব বিচারকের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে এবং ওই সম্মেলনের কার্যবিবরণী সুপ্রিম কোর্টে পাঠাতে হবে। তৃতীয় দফা নির্দেশনায় বলা হয়, চিফ জুডিশিয়াল ও চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটরা প্রতি মাসে অবশ্যই পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেট সম্মেলনের আয়োজন করবেন। ওই সম্মেলনের কার্যবিবরণীও সুপ্রিম কোর্টে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন প্রধান বিচারপতি।

চতুর্থ দফা নির্দেশনায় প্রধান বিচারপতি বলেন, জেলা ও দায়রা জজ-অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজরা প্রতিদিন ফৌজদারি বিবিধ মামলা নিষ্পত্তি করে বিশেষ আইনের মামলার বিচারকাজ শুরু করবেন এবং অবশ্যই প্রতি কর্মদিবসের দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৪টা ৩০ পর্যন্ত দেওয়ানি আপিল, দেওয়ানি রিভিশন, ফৌজদারি আপিল ও ফৌজদারি রিভিশন ও অন্যান্য মূল দেওয়ানি মামলার বিচারকাজ সম্পন্ন করবেন।

সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার এস এম কুদ্দুস জামান এ বিষয়ে কালের কণ্ঠকে বলেন, নিম্ন আদালতগুলোতে মামলাজট বেশ প্রকট। এই মামলাজট নিরসনে বিচারকদের আরো উদ্যোগী হতে এ আদেশ দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি। আদেশের কপি প্রতিটি মহানগর, জেলা আদালতসহ সুপ্রিম কোর্টের অধীনে সব আদালতে পাঠানো হয়েছে। এই চার দফা নির্দেশনার মাধ্যমে নিম্ন আদালতের মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তির মাধ্যমে মামলাজট নিরসন হবে বলে তিনি আশা করেন।

 


মন্তব্য