kalerkantho

ব্যক্তিত্ব

২০ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যক্তিত্ব

আইজাক নিউটন

পদার্থবিজ্ঞানী, গণিতবিদ ও জ্যোতির্বিজ্ঞানী আইজাক নিউটনের জন্ম ৪ জানুয়ারি ১৬৪৩ সালে ইংল্যান্ডে। তাঁর বাবার নাম আইজাক ও মা হানাহ। তাঁর প্রাথমিক শিক্ষা সম্পন্ন হয় বাড়ির পাশের এক ক্ষুদ্রায়তন স্কুলে। ১২ বছর বয়সে তাঁকে গ্রান্থামের ব্যাকরণ স্কুলে পড়াশোনার জন্য পাঠানো হয়। স্কুলজীবনের প্রথম থেকেই নিউটনের ঝোঁক ছিল বিভিন্ন ধরনের যন্ত্র তৈরির প্রতি। সেই বয়সেই তিনি উইন্ডমিল, জলঘড়ি, ঘুড়ি ও সান-ডায়াল তৈরি করেছিলেন। তিনি ১৬৬১ সালে ট্রিনিটি কলেজ থেকে ম্যাট্রিকুলেশন পাস করেন। সেখানে তিনি গণিত ও বলবিজ্ঞান বিষয়ে পড়াশোনা করেছিলেন। ট্রিনিটি কলেজে প্রথমে তিনি কেপলারের আলোকবিজ্ঞান বিষয়ক সূত্রের ওপর অধ্যয়ন করেন এবং পরে ইউক্লিডের জ্যামিতির প্রতি মনোনিবেশ করেন। স্নাতক শিক্ষা গ্রহণকালে একটি ছোট বইয়ের তাকে তিনি সব বই সাজিয়ে রাখতেন। ওখানে সেই সময়ে লেখা বেশ কিছু নিবন্ধ পাওয়া গেছে। ১৬৬৫ সালে স্নাতক ডিগ্রি লাভের আগেই তিনি তাঁর বিখ্যাত দ্বিপদী উপপাদ্য বিষয়ক সূত্র প্রমাণ করেন এবং রসায়ন, আলোকবিজ্ঞান ও গাণিতিক অনুধ্যানের প্রকল্প বিষয়ে নিরীক্ষণ চালিয়ে যান। ১৬৮৬ সালে তাঁর লেখা সবচেয়ে বিখ্যাত গ্রন্থ ফিলোসফিয়া ন্যাচারালিস প্রিন্সিপিয়া ম্যাথমেটিকা বইটি প্রকাশের পর সমগ্র ইউরোপে বিপুল সাড়া জাগায়। বন্ধু লক রেন ও লর্ড হালিফাক্সের সহযোগিতায় তিনি ১৬৯৫ সালে ইংল্যান্ড সরকারের ওয়ার্ডেন অব দ্য মিন্ট এবং পরবর্তী সময়ে মাস্টার অব দ্য মিন্ট পদে অধিষ্ঠিত হন। তাঁর বৈজ্ঞানিক গবেষণা তাঁকে প্রভূত সম্মান এনে দিয়েছিল। তিনি ইংল্যান্ডের বিচারালয়ে জনপ্রিয় পরিদর্শক ছিলেন। ১৭০৫ সালে তিনি নাইট উপাধিতে ভূষিত হন। ২০ মার্চ ১৭২৭ সালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

[উইকিপিডিয়া অবলম্বনে]

মন্তব্য