kalerkantho

ব্যক্তিত্ব

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ব্যক্তিত্ব

নিকোলা তেসলা

মানবতাবাদী বিজ্ঞানী নিকোলা তেসলাকে ‘দ্য ম্যান হু ইনভেন্টেড দ্য টোয়েন্টিয়েথ সেঞ্চুরি’ বলে অভিহিত করা হয়। অসংখ্য বৈজ্ঞানিক আবিষ্কারের পাশাপাশি মানবতার জন্য তিনি ছিলেন নিবেদিত।

তেসলা ১৮৫৬ সালের ১০ জুলাই বর্তমান ক্রোয়েশিয়ার স্লিমিজান শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবা মিলুতিন তেসলা নিজেই বাড়িতে নানা ধরনের জিনিসপত্র বানাতেন। মা ডুকা তেসলার কাছেই তাঁর প্রাথমিক শিক্ষা শুরু। স্কুলজীবনেই অসাধারণ প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছিলেন তিনি। অনেক কঠিন অঙ্ক মুখে মুখে করে ফেলতেন। চার বছরের গ্র্যাজুয়েশন তিন বছরেই শেষ করেছিলেন তিনি। ১৮৮২ সাল থেকে তিনি এডিসন কম্পানির হয়ে কাজ শুরু করেন। ১৮৮৬ সালে নিজেই একটি কম্পানি করেন। চৌম্বক তরঙ্গ ব্যবহারের মাধ্যমে প্রাকৃতিক শক্তি আয়ত্তে আনার অভাবনীয় কৌশলের তিনিই আবিষ্কারক। বিজ্ঞানীরা তাঁর লেখা থেকে পরবর্তী সময়ে ধারণা করেন যে তিনি ‘মুক্ত জ্বালানি যন্ত্র’ ধরনের একটি বিশেষ কিছু তৈরি করেছিলেন। অনেকে অবশ্য এই আবিষ্কারকেই তাঁর রহস্যজনক মৃত্যুর জন্য দায়ী করেন। ১৮৯১ সালে তিনি আমেরিকার নাগরিকত্ব পান। এর পরই নিজের ল্যাবরেটরি নিউ ইয়র্কে নিয়ে যান। তিনি এসি বিদ্যুৎ আবিষ্কারের মাধ্যমে বিদ্যুতের বহুমুখী ও বাণিজ্যিক ব্যবহারের পথ উন্মুক্ত করেন। তাঁর আবিষ্কারের মধ্যে আরো রয়েছে ব্লেডবিহীন টার্বাইন, ফ্লুরোসেন্ট বাতি, লেজার, আড়াআড়ি চলনসই বিমান, শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্র প্রভৃতি। রোবটিকস, রেডিও, মিসাইল ও নিউক্লিয়ার পদার্থবিজ্ঞান গবেষণাক্ষেত্রেও তাঁর গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। মৃত্যুকালে তাঁর পেটেন্টের সংখ্যা ছিল সাত শর বেশি। ১৯৪৩ সালের ৭ জানুয়ারি এই বিজ্ঞানীর মৃত্যু হয়।

[উইকিপিডিয়া অবলম্বনে]



মন্তব্য