kalerkantho

ব্যক্তিত্ব

১৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ব্যক্তিত্ব

অন্নদাশঙ্কর রায়

অন্নদাশঙ্কর রায় ছিলেন ঔপন্যাসিক, প্রাবন্ধিক, কবি, চিন্তাবিদ। জন্ম ১৯০৪ সালের ১৫ মার্চ ভারতের ওড়িশায়।

পাটনা বিশ্ববিদ্যালয়ে আইএ পরীক্ষায় প্রথম হয়ে ইংরেজি সাহিত্যে স্নাতক করেছিলেন। এমএ পড়াকালে আইসিএস পরীক্ষায় প্রথম স্থান পেলে প্রশিক্ষণের জন্য ইংল্যান্ড চলে যান। তিনি লন্ডনের ইউনিভার্সিটি কলেজ, কিংস কলেজ, লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিকস, লন্ডন স্কুল অব ওরিয়েন্টাল স্টাডিজে পড়াশোনা ও প্রশিক্ষণ নেন। ১৯২৯ সালে দেশে ফিরে বহরমপুরে অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যাজিস্ট্রেট পদে যোগ দিয়েছিলেন। ১৯৪৭ সালে তিনি উচ্চতর ইন্ডিয়ান অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিসের (আইএএস) সদস্য হিসেবে পশ্চিমবঙ্গের প্রশাসন ও বিচার বিভাগে দায়িত্ব নেন। তবে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে মতবিরোধের কারণে ১৯৫০ সালে পদত্যাগ করেন। তিনি রাজনৈতিক, সামাজিক বিষয়বস্তু, শিল্পীর স্বাধীনতা ও নন্দনতত্ত্বে জটিল জিজ্ঞাসা নিয়ে নিয়মিত লিখেছেন। ছড়া, কবিতা, উপন্যাস, গল্প, প্রবন্ধ, ভ্রমণকাহিনি মিলিয়ে তাঁর গ্রন্থের সংখ্যা বাংলায় ১২৩, ইংরেজিতে ৯, ওড়িশি ভাষায় তিন। তাঁর প্রথম উপন্যাস ‘আগুন নিয়ে খেলা’, প্রথম কবিতার বই ‘রাখী’, প্রথম ছড়ার বই ‘উড়কি ধানের মুড়কি’, ছোটদের বই ‘রাঙা ধানের খই’, প্রথম গল্পগ্রন্থ ‘প্রকৃতির পরিহাস’ ইত্যাদি। যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক অ্যালিস ভার্জিনিয়া অনফোর্ডকে বিয়ে করেন এবং স্ত্রীর নাম দেন লীলা রায়। লীলা রায় তাঁর বহু বই বাংলা থেকে ইংরেজিতে অনুবাদ করেছেন। পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমির জন্মকাল থেকে তিনি আজীবন সভাপতি ছিলেন। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগত্তারিণী পুরস্কার, বিশ্বভারতীর দেশিকোত্তম সম্মান, সাহিত্য আকাদেমি ও আনন্দ পুরস্কার (দুবার) এবং বিদ্যাসাগর পুরস্কারসহ নানা সম্মাননায় ভূষিত হয়েছিলেন। ২০০২ সালের ২৮ অক্টোবর উনিশ শতকের বাঙালি রেনেসাঁ ঐতিহ্যের অন্যতম এই বুদ্ধিজীবী পরলোকগমন করেন।


মন্তব্য