kalerkantho

ভালো থাকুন

৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



অহেতুক ভীতি

নির্দিষ্ট বস্তু বা পরিস্থিতির জন্য নির্দিষ্ট মাত্রার ভয় সামাজিকভাবে গ্রহণযোগ্য। কিন্তু এই ভয়ই যদি স্বাভাবিকতার সীমা অতিক্রম করে তীব্র আকার ধারণ করে অথবা ভয়টি হয় অহেতুক, তখন তা রোগ হিসেবে পরিগণিত হয়।

সাধারণত একে ফোবিয়া বা ফোবিক ডিজঅর্ডার বা অহেতুক ভীতি রোগ বলা হয়। বিভিন্ন প্রাণী, যেমন কুকুর, তেলাপোকা, মাকড়সা প্রভৃতিতে অনেকে অহেতুক ভয় পায়, আবার অনেকে উচ্চতা, পাহাড়, সমুদ্র, বিমানে চড়া, লিফটে ওঠা, বদ্ধ স্থান প্রভৃতিতে অতিরিক্ত ভয় পায়। ফোবিয়ায় আক্রান্ত ব্যক্তির অহেতুক ভীতির কারণে তার ব্যক্তিজীবন, শিক্ষাজীবন বা কর্মজীবনে ব্যাঘাত ঘটে। ব্যক্তি বুঝতে পারে যে তার ভীতিটি অহেতুক বা অতিরিক্ত, কিন্তু ভয়টা সে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না। যে বিষয় বা পরিস্থিতি ভয়ের সৃষ্টি করে, ব্যক্তি তা এড়িয়ে চলে অথবা তার মুখোমুখি হলে অতিরিক্ত উদ্বেগের শারীরিক ও মানসিক লক্ষণ দেখা দেয়।

অহেতুক ভীতি রোগে আক্রান্ত ব্যক্তি নিজের সমস্যাটা বুঝতে পারলেও অনেক সময় লোকলজ্জায় তা প্রকাশ করে না। এ রোগের লক্ষণ বুঝতে পারলে দেরি না করে মনোরোগ বিশেষজ্ঞ বা চিকিৎসা মনোবিজ্ঞানীর পরামর্শ নিন।

ডা. মুনতাসীর মারুফ


মন্তব্য