kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

ব্যক্তিত্ব

১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



ব্যক্তিত্ব

মনোরমা বসু

মনোরমা বসু স্বদেশি আন্দোলনের নেত্রী, নারী সংগঠক, সমাজসেবক। ১৮৯৭ সালের ১৮ নভেম্বর বরিশালের বানারীপাড়ায় জন্ম।

মাত্র ১১ বছর বয়সে ক্ষুদিরামের আত্মত্যাগে অনুপ্রাণিত হয়ে তিনি রাজনীতিতে আগ্রহী হন। ১৪ বছর বয়সে বরিশালের জমিদার চিন্তাহরণ বসুর সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল। স্বামীর সমর্থন পেয়ে তিনি স্বদেশি আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন। নিজে পড়ালেখা বেশি করতে পারেননি। তাই ছেলেমেয়েদের শিক্ষার স্বার্থে জমিদারবাড়ি ছেড়ে বরিশালে চলে আসেন। কংগ্রেসের কর্মী হিসেবে আইন অমান্য আন্দোলনে যোগ দিয়ে জেলে গিয়েছিলেন। নারী অধিকার রক্ষায় তাঁর প্রতিষ্ঠিত ‘সরোজ নলিনী মহিলা সমিতি’র শাখা বাংলাদেশের প্রথম নারী সংগঠন হিসেবে গণ্য। এ ছাড়া তিনি বিধবা ও কুমারীদের সাহায্যের জন্য ‘মাতৃমন্দির আশ্রম’ প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি স্থানীয় ‘মহিলা আত্মরক্ষা সমিতি’র (বরিশাল শাখা) প্রতিষ্ঠাতা। ‘বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ’-এর বরিশাল শাখা তিনিই প্রতিষ্ঠা করেন। এ ছাড়া আদর্শ প্রাথমিক বিদ্যালয়, পল্লীকল্যাণ অমৃত পাঠাগার, মুকুল মিলন খেলাঘর ইত্যাদি নানা সংগঠন তাঁর হাতে প্রতিষ্ঠিত। চৌষট্টির গণ-আন্দোলন, ঊনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থান এবং মুক্তিযুদ্ধে নারীদের সংগঠিতকরণে তাঁর গুরুত্বপূর্ণ অবদান ছিল। দেশপ্রেম, সমাজসেবা ও মানুষের প্রতি ভালোবাসার কারণে অনেকেই তাঁকে ‘মাসিমা’ বলে ডাকতেন। ১৯৮৬ সালের ১৬ অক্টোবর তিনি মারা যান। তাঁর জীবদ্দশায়ই সত্যেন সেনের ‘মনোরমা মাসিমা’ বইটি প্রকাশিত হয়েছিল।

[বাংলাপিডিয়া অবলম্বনে]


মন্তব্য