kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

ভালো থাকুন

৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



বয়স ৪০ পেরোলে

৪০ বছর বয়সের পর শরীরের ব্যাপারে একটু বাড়তি সচেতনতা প্রয়োজন। অনেক রোগ এ সময় প্রাথমিকভাবে ধরা পড়লে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়ে জটিলতা এড়ানো যায়।

৪০ পার হলে শরীরের একটা রুটিন চেকআপ করিয়ে নেওয়া ভালো। স্থ্থূলকায় হলে ওজন মেপে বডি মাস ইনডেক্স (বিএমআই) হিসাব করুন। রক্তের কোলেস্টেরল, ট্রাইগ্লিসারাইডের পরিমাণ পরীক্ষা করুন। খাওয়াদাওয়ার ব্যাপারে সতর্ক থাকুন। তারুণ্য ধরে রাখতে রসনাকে সামলাতে শিখতে হবে। মা-বাবার উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস বা অন্য কোনো রোগ থাকলে সে অনুযায়ী নিজেরও কিছু পরীক্ষা করিয়ে নিতে পারেন। সাত দিনে কয়েকবার শান্ত, স্থির অবস্থায় রক্তচাপ মেপে লিখে রাখুন। রক্তের গ্লুকোজ পরীক্ষা করিয়ে নিন। বয়স ৫০ পার হলে পুরুষদের ক্ষেত্রে প্রোস্টেটের অবস্থা জেনে নিতে পারেন আল্ট্রাসনোগ্রাম ও অন্যান্য পরীক্ষা করে। মহিলাদের ক্ষেত্রে জরায়ুমুখের পরীক্ষা পেপস্মিয়ার টেস্ট করানো উচিত। নিজে নিজেই স্তন পরীক্ষা করাটা শেখা থাকা দরকার। তবে পরীক্ষায় কোনো রোগের আভাস পাওয়া গেলেই ঘাবড়ে যাওয়ার কিছু নেই। চিকিৎসকের কাছ থেকে জেনে নিন কী নিয়ম মেনে চললে সুস্থ থাকবেন, এড়াতে পারবেন ভবিষ্যৎ জটিলতা।

ডা. মুনতাসীর মারুফ


মন্তব্য