kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

ভালো থাকুন

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ভালো থাকুন

শিশুরও হতে পারে বিষণ্নতা

কোনো ঘটনা বা দুর্ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে প্রত্যেক মানুষেরই, এমনকি শিশুরও কখনো না কখনো মন খারাপ হতে পারে। এটি স্বাভাবিক প্রতিক্রিয়া।

কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে বেশির ভাগ সময় মন খারাপ থাকলে কাজেকর্মে উৎসাহ না পেলে, ঘুম ও খাওয়ার রুচি কমে গেলে, অস্বাভাবিক ক্লান্তি, ধীরগতি, নেতিবাচক চিন্তা প্রভৃতি দেখা দিলে ব্যক্তি বিষণ্নতা রোগে আক্রান্ত বলে ধারণা করা যায়। এই লক্ষণগুলো দেখা দিতে পারে শিশুরও। তবে শিশুদের চিন্তাভাবনা বা প্রকাশের ক্ষমতা বড়দের মতো হয় না বলে অনেক ক্ষেত্রে মন খারাপ হওয়ার কথা শিশুরা নাও বলতে পারে। তাদের ক্ষেত্রে বিরক্তি, অস্থিরতা, খিটখিটে মেজাজই বিষণ্নতার বহিঃপ্রকাশ হতে পারে। অনেক শিশু বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা, যেমন—মাথা ব্যথা, পেট ব্যথার অভিযোগ করে, যারা প্রকৃতপক্ষে ভুগছে বিষণ্নতায়। এ ছাড়া স্কুলে যেতে অনীহা, পড়ায় মনোযোগ না পাওয়া, সমবয়সীদের সঙ্গে মিশতে ও খেলতে অনাগ্রহ, একা একা চুপচাপ থাকা প্রভৃতি উপসর্গও দেখা যায়। এসব উপসর্গ দেখা দিলে মা-বাবাকে সতর্ক হতে হবে, শিশু আসলেই বিষণ্নতায় ভুগছে কি না তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

ডা. মুনতাসীর মারুফ


মন্তব্য