kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

ব্যক্তিত্ব

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ব্যক্তিত্ব

এস ওয়াজেদ আলী

 

এস ওয়াজেদ আলী ছিলেন প্রাবন্ধিক, গল্প লেখক ও ভ্রমণকাহিনী রচয়িতা। জন্ম ১৮৯০ সালের ৪ সেপ্টেম্বর পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলায়।

বাবা শেখ বেলায়েত আলী ছিলেন ব্যবসায়ী। ওয়াজেদ আলী আলীগড় কলেজ থেকে আইএ, এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএ এবং ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বার অ্যাট ল করেন। ১৯১৫ সালে কলকাতা হাইকোর্টে আইনজীবী হিসেবে কর্মজীবন শুরু। ১৯২৩ সালে ম্যাজিস্ট্রেট নিযুক্ত হয়ে প্রায় দুই দশক বিচারকার্য পেশায় যুক্ত ছিলেন। উদার, গণতান্ত্রিক, প্রগতিশীল এস ওয়াজেদ আলী লেখালেখি ও রাজনীতিতেও সক্রিয় ছিলেন। ১৯১৯ সালে একটি ইংরেজি সাময়িকী ও ১৯৩২ সালে গুলিস্তা নামে একটি বাংলা মাসিক সাহিত্য পত্রিকা সম্পাদনা ও প্রকাশ করেন। ১৯৩৫ সালে সিরাজগঞ্জে অনুষ্ঠিত ‘নিখিল বঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সম্মিলনী’তে সভাপতি হিসেবে যোগ দেন। পরাধীন ভারতবর্ষে বসে তিনি স্বপ্ন দেখতেন বাঙালি জাতীয়তাবাদ এবং একটি ভাষাভিত্তিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করার। তাঁর ‘ভবিষ্যতের বাঙালি’ গ্রন্থেও এ স্বপ্ন ধরা পড়ে। তাঁর রচনার মধ্যে আরো আছে প্রবন্ধগ্রন্থ ‘জীবনের শিল্প’, ‘প্রাচ্য ও প্রতীচ্য’, ‘আকবরের রাষ্ট্র সাধনা’ ইত্যাদি। একমাত্র উপন্যাস ‘গ্রানাডার শেষ বীর’। ‘গুলদাস্তা’, ‘বাদশাহী গল্প’, ‘গল্পের মজলিশ’ ইত্যাদি তাঁর গল্পগ্রন্থ এবং ‘পশ্চিম ভারত’ ভ্রমণ কাহিনী। ১৯৫১ সালের ১০ জুন এস ওয়াজেদ আলী কলকাতায় মারা যান।


মন্তব্য