kalerkantho

বুধবার । ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ । ৫ মাঘ ১৪২৩। ১৯ রবিউস সানি ১৪৩৮।

ভালো থাকুন

৯ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



গাঁজা থেকে দূরে থাকুন

অনেক মাদকসেবীর অভিভাবক বা পরিবারের লোকজন গাঁজাকে খুব হালকাভাবে নেন, শুরুর দিকে আসক্তের গাঁজা সেবনের ব্যাপারটি জানলেও খুব একটা গুরুত্ব দেন না বা চিকিৎসার প্রয়োজন অনুভব করেন না। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে গাঁজাও একটি সর্বনাশা, ভয়ংকর মাদক। দীর্ঘমেয়াদে গাঁজা সেবনে যে পরিমাণ শারীরিক ক্ষতি হয়, তার চেয়েও বেশি হয় মানসিক সমস্যা। সে কারণে গাঁজাকে হালকাভাবে না নিয়ে এর বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান নিতে হবে, গাঁজাকে ‘না’ বলতে শিখতে হবে। অভিভাবকদেরও এ ব্যাপারে সচেতন হতে হবে। সন্তান যেন বিপথগামী না হতে পারে, সে জন্য আগে থেকেই সন্তানের সঙ্গে বন্ধুর মতো মিশতে হবে, তার বন্ধুবান্ধব সম্পর্কে অবগত থাকতে হবে। সন্তান গাঁজা নিচ্ছে এ ব্যাপারে সন্দেহ হলে তার সঙ্গে খোলামেলাভাবে সহযোগিতাপূর্ণ মনোভাব নিয়ে কথা বলতে হবে, তাকে দায়ী না করে বরং তার সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করতে হবে। কেউ গাঁজা সেবন করলে প্রস্রাব পরীক্ষার মাধ্যমে তা নিশ্চিত হওয়া যায়। এ থেকে মুক্তির জন্য মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা করাতে হবে। যেকোনো মাদকের চিকিৎসা দীর্ঘমেয়াদি। ধৈর্য ধরে বিশেষজ্ঞের পরামর্শমতো চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হবে।

ডা. মুনতাসীর মারুফ


মন্তব্য