kalerkantho

ব্যক্তিত্ব

৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ব্যক্তিত্ব

সুকুমার সেন

বাংলা ভাষার অন্যতম পণ্ডিত ও শিক্ষাবিদ সুকুমার সেন ১৯০১ সালের ১৬ জানুয়ারি কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন। পৈতৃক নিবাস বর্ধমানে, আইএ পর্যন্ত পড়ালেখা করেন।

পরে কলকাতা সংস্কৃত কলেজ থেকে সংস্কৃতে অনার্সসহ বিএ ও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএ করেন। স্নাতক পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণিতে দ্বিতীয় এবং স্নাতকোত্তরে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম হয়েছিলেন। প্রেমচাঁদ-রায়চাঁদ বৃত্তি নিয়ে গবেষণার কাজ করে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি লাভ করেন ১৯৩৭ সালে। সুকুমার সেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনামূলক ভাষাতত্ত্ব বিভাগে প্রথমে অধ্যাপক, পরে বিভাগীয় প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি পুনার ডেকান কলেজেও অধ্যাপনা করেছেন। তিনি বাঙ্গালা সাহিত্যের সুবিস্তৃত, সুশৃঙ্খল, তথ্যসমৃদ্ধ ও সত্যনিষ্ঠ ধারাবাহিক ইতিহাস রচনা করে ব্যাপক খ্যাতি অর্জন করেন। ভাষাতত্ত্ব ও ধ্বনিতত্ত্বের বিশ্লেষক হিসেবে তাঁর পাণ্ডিত্য ছিল অসাধারণ। প্রকাশিত উল্লেখযোগ্য বইয়ের মধ্যে আছে, ‘বাঙ্গালা সাহিত্যের কথা’, ‘বাঙ্গালা সাহিত্যের ইতিহাস’ (চার খণ্ড), ‘বাঙ্গালা সাহিত্যে গদ্য’, ‘বিচিত্র সাহিত্য’, ‘চর্যাগীতি পদাবলি’, ‘ইসলামী বাঙ্গালা সাহিত্য’, ‘পরিজন পরিবেশে রবীন্দ্র-বিকাশ’, ‘ভারতীয় সাহিত্যের ইতিহাস’ ইত্যাদি। এ ছাড়া তিনি ছিলেন রবীন্দ্রনাথের সাহিত্য ব্যাখ্যাকার ও রসজ্ঞ। ‘ভারতীয় আর্যসাহিত্যের ইতিহাস’ বইটির জন্য তিনি রবীন্দ্র পুরস্কার পান। এশিয়াটিক সোসাইটি তাঁকে ‘যদুনাথ সরকার পদক’ দিয়ে সম্মানিত করে। এ ছাড়া রবীন্দ্রচর্চা কেন্দ্র থেকে পান ‘রবীন্দ্র তত্ত্বাচার্য’ উপাধি। তিনি ১৯৯২ সালের ৩ মার্চ কলকাতায় মারা যান।

[বাংলা একাডেমির চরিতাভিধান অবলম্বনে]


মন্তব্য