ব্যক্তিত্ব-330633 | মুক্তধারা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১২ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৪ জিলহজ ১৪৩৭

ব্যক্তিত্ব

১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ব্যক্তিত্ব

অক্ষয়কুমার মৈত্রেয়

বিশিষ্ট আইনজীবী, সমাজকর্মী ও ঐতিহাসিক। জন্ম ১৮৬১ সালের ১ মার্চ পশ্চিমবঙ্গের নদীয়ায়। তিনি বোয়ালিয়া ইংলিশ স্কুল (বর্তমানে রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুল) থেকে এন্ট্রান্স, রাজশাহী কলেজ থেকে এফএ, কলকাতা প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে বিএ এবং রাজশাহী কলেজ থেকে বিএল পাস করেন। রাজশাহীতে আইন পেশা দিয়ে কর্মজীবন শুরু। গবেষণা ও ইতিহাসচর্চায় তিনি পুরো জীবন উৎসর্গ করেন। তিনি বাংলার প্রাচীন ও মধ্যযুগীয় ইতিহাস, শিল্পকলা ও পটশিল্প সম্পর্কে প্রামাণিক জ্ঞান অর্জন করেন। তিনি ঐতিহাসিক চিত্র (১৮৯৯) শিরোনামে  সিরাজউদ্দৌলা,  মীর কাসিম,  রানী ভবানী, সীতারাম, ফিরিঙ্গি বণিক প্রমুখ ব্যক্তিকে নিয়ে ইতিহাসবিষয়ক প্রথম বাংলা সাময়িক পত্রিকা প্রকাশ করেন। তিনি বাংলার রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ইতিহাস, ঐতিহাসিক গুরুত্বসম্পন্ন স্থান, শিল্পকলা ও পটশিল্প সম্পর্কে তথ্যমূলক নিবন্ধও প্রকাশ করেন। ১৯১২ সালে প্রকাশিত গৌড়লেখমালায় তিনি কয়েকটি পাল তাম্রশাসন ও শিলালিপি বাংলা অনুবাদসহ সম্পাদনা করেন। ফলে বাংলা ভাষায় ঐতিহাসিক গবেষণার নতুন ক্ষেত্র উন্মোচিত হয়। তিনি ছিলেন বরেন্দ্র রিসার্চ সোসাইটি ও বরেন্দ্র রিসার্চ মিউজিয়াম প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম। তিনি দুটি প্রতিষ্ঠানেরই প্রাণপুরুষ ছিলেন। সোসাইটির পরিচালক ছিলেন দীর্ঘ ৩০ বছর। রাজশাহী পৌরসভার কমিশনার থাকাকালে তিনি রাজশাহীর নাগরিক সুবিধাসংশ্লিষ্ট অবকাঠামো ও সাংস্কৃতিক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ত্বরান্বিত করেন। ডায়মন্ড জুবিলি ইন্ডাস্ট্রিয়াল স্কুলের সূচনালগ্নে তিনি পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন। স্কুলের অবৈতনিক প্রশিক্ষক হিসেবে তিনি ছাত্রছাত্রীদের রেশম চাষ পদ্ধতি শেখাতেন। ১৯৩০ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি তিনি মারা যান।

[বাংলাপিডিয়া অবলম্বনে]

মন্তব্য