kalerkantho


মাঠ রক্ষার দায়িত্ব সবার

৩ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



দেশের জনসংখ্যা ষোল কোটিরও বেশি। শিশু-কিশোর ৩০.৮ শতাংশ। শিশুরাই জাতির ভবিষ্যৎ প্রজন্ম। তারাই আগামীর কবি, সাহিত্যিক, শিল্পী, বিজ্ঞানী, নেতা, মন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রী বা রাষ্ট্রপতি। প্রতিটি মানুষের জীবনে শৈশব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, ভবিষ্যৎ জীবনের ভিত্তি তৈরি হয় এ বয়সেই। এ সময়েই শিশুদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশ ঘটে, খেলাধুলা তাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। শিশু-কিশোরদের সুস্থ দেহ ও সুস্থ মন নিয়ে বেড়ে ওঠার জন্য খেলাধুলার প্রয়োজন, আর তার জন্য খেলার মাঠ প্রয়োজন। সাঁতার শেখাও প্রয়োজন। শিশু-কিশোরদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশের জন্য সুস্থ পরিবেশ সৃষ্টি করার দায়িত্ব রাষ্ট্রের। দুঃখের বিষয় হলো, মাঠ-পুকুর দখলদারদের হাতে চলে যাচ্ছে। জনসংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে শুধু খেলার মাঠই নয়, জলাশয় ও কৃষি জমির পরিমাণও কমছে। জনসংখ্যার চাপ কমানো কঠিন, জায়গাও বাড়ানো সম্ভব নয়। অর্থনৈতিক উন্নয়নেও বাধা সৃষ্টি করা যাবে না। তাই বহুতল বাসভবন নির্মাণে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে উদ্যোগ নিতে হবে। আর যাতে খেলার মাঠ, জলাশয়, পুকুর বা উন্মুক্ত স্থান বেদখল না হয় সে জন্য সরকারকে কঠোর হতে হবে; সামাজিক প্রতিরোধও সৃষ্টি করতে হবে। 

বিপ্লব বিশ্বাস

ফরিদপুর।


মন্তব্য